গালি খাওয়ার শীর্ষে রোনালদো

সাম্প্রতিক সময় খেলোয়াড়দের কটূক্তি করা যেন রীতিমতো মানুষের বদভ্যাসে পরিণত হয়েছে। কোনো তারকা বাজে খেললে তো কথাই নেই, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে তাদের নিয়ে বাজে মন্তব্য চলতেই থাকে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের গত মৌসুমে গালি খাওয়াদের এ তালিকায় সবার শীর্ষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। টুইটারের ওপর পরিচালিত এক সমীক্ষা থেকে উঠে এসেছে এমন তথ্য।

0 10,584

খেলোয়াড়দের নিয়ে বাজে মন্তব্য করার সমীক্ষাটি করেছে  যুক্তরাজ্যের জাতীয় তথ্য সংস্থা অ্যালনি টার্নিও ইনস্টিটিউট। তাদের তথ্যমতে, রোনালদোর পর সবচেয়ে বেশি গাল খান তারই সতীর্থ হ্যারি মাগুইয়ার। সংস্থাটির তথ্যানুযায়ী গত মৌসুমের প্রথম ভাগে সব মিলিয়ে ১২ হাজার ৫২০টি কটূক্তিমূলক টুইটবার্তা পেয়েছেন রোনালদো। মাগুইয়ার পেয়েছেন ৮ হাজার ৯৫৪টি।

গালি খাওয়াদের এ তালিকায় তৃতীয় স্থানে থাকা মার্কোস রাশফোর্ড পেয়েছেন ২ হাজার ৫৫৭টি টুইট। গত মৌসুমে ষষ্ঠ স্থানে থেকে হতাশাজনক প্রিমিয়ার লিগ মৌসুম শেষ করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। আর সে কারণেই সমর্থকদের রোষানলে পড়তে হয়েছে ইউনাইটেডের খেলোয়াড়দের। টুইটারে সবচেয়ে বেশি কটূক্তিমূলক বার্তা যাদের উদ্দেশে করে লেখা হয়েছে, তাদের শীর্ষ ১০ খেলোয়াড়ের মধ্যে আটজনই ইউনাইটেডের।

রোনালদো, মাগুইয়ার ও রাশফোর্ড ছাড়াও এ তালিকায় রয়েছেন ব্রুনো ফার্নান্দেস, ফ্রেড, জেসে লিনগার্ড, পল পগবা ও ডেভিড ডি গিয়া। তালিকায় শীর্ষ ১০-এ থাকা অপর দুই খেলোয়াড় হলেন টটেনহ্যাম হটস্পারের হ্যারি কেন ও ম্যানচেস্টার সিটির জ্যাক গ্রীলিশ।

হ্যারি কেন পেয়েছেন ২ হাজার ১২৭টি ও গত বছর ব্রিটিশ রেকর্ড ১০০ মিলিয়ন পাউন্ডে সিটিতে আসা গ্রিলিশ পেয়েছেন ১ হাজার ৫৩৮টি ঘৃণামূলক পোস্ট। প্রায় ২.৩ মিলিয়ন টুইটবার্তার ওপর সমীক্ষাটি পরিচালনা করা হয়েছে। যার মধ্যে ৬০ হাজারই ছিল বিদ্বেষমূলক।

Leave A Reply

Your email address will not be published.