বিগ ব্যাশের ড্রাফটে তিন বাংলাদেশি ক্রিকেটার

বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগ বিগ ব্যাশের ড্রাফটে জায়গা পেয়েছে তিন বাংলাদেশি ক্রিকেটার। আগস্টের শেষ সপ্তাহের নিলামে জানা যাবে তারা কোনো দল পাবেন কি না?

0 10,018

অস্ট্রেলিয়ার ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টের আগামী আসরের জন্য ১৮০ জনেরও বেশি বিদেশি ক্রিকেটারের নাম নিবন্ধন করা হয়েছিল। সেখান থেকে আয়োজকরা বুধবার (০৩ আগস্ট) ৯৮ জন বিদেশি ক্রিকেটারকে ড্রাফটে বেছে নিয়েছেন। যে তালিকায় আছেন দুই টাইগার পেসার আল আমিন হোসেন, শফিউল ইসলাম ও সবশেষ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলা অলরাউন্ডার রিপন মণ্ডল।

চলতি বছরের শেষে আগামী ১৩ ডিসেম্বর মাঠে গড়াবে বিগ ব্যাশের ১২তম আসর। তার আগে আগামী ২৮ আগস্ট বসবে নিলাম। যেখানে অংশ নেবে মোট আটটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দল। অজি ক্রিকেটারের পাশাপাশি ড্রাফটে থাকা ৯৮ বিদেশি ক্রিকেটার থেকে যোগ্যদের বেছে নেবে তারা। অন্যান্য ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে চার ক্রিকেটারকে একাদশে রাখা গেলেও বিগ ব্যাশের নিয়ম অনুযায়ী মাত্র তিনজন বিদেশি ক্রিকেটার জায়গা পান এ ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগটির একাদশে। সেটাও গত দুই মৌসুম ধরে।

তার আগে দুজনের বেশি-বিদেশি ক্রিকেটার নিয়ে একাদশ সাজানো যেত না। আর নিলাম থেকে ছয়জনের বেশি বিদেশি ক্রিকেটার ক্রয়ের নিয়ম নেই। ফলে ৯৮ জনের ভিড়ে তিন টাইগার ক্রিকেটারের সুযোগ পাওয়াটা বেশ কঠিনই। এখন পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগটিতে একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে খেলার সুযোগ পেয়েছিল কেবল সাকিব আল হাসান। তিনি ২০১৪ সালে অ্যাডিলেইড স্ট্রাইকার্স ও ২০১৫ সালে মেলবোর্ড রেনেগার্ডসের হয়ে খেলেন। প্রায় দুই মাসের এ আসর শেষ হবে ২০২৩ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি।

অন্যদিকে বাংলাদেশের প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) আগামী আসর মাঠে গড়াবে ২০২৩ সালের ৫ জানুয়ারি, শেষ হবে ১৬ ফেব্রুয়ারি। দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের সূচির সঙ্গে সাংঘর্ষিক হওয়ায় এ লিগে সুযোগ পেলেও আল আমিনরা অনুমতি পাবেন কি না, তা নিয়ে রয়েছে সংশয়। কারণ বিসিবির পক্ষ থেকে আগেই জানিয়ে দেয়া হয়েছিল, বিপিএল চলকালে অন্য কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলতে পারবেন না দেশের ক্রিকেটাররা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.