১৫ বছরে প্রথম ব্যালন ডি’অরের দৌড়ে নেই মেসি-রোনালদো

২০০৭ সালের পর থেকে ব্যালন ডি’অর নিজেদের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলেছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসি। সবশেষ ২০১৮ সালে তাদের হাত থেকে ফসকে ফুটবলারদের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ মর্যাদার পুরস্কারটি উঠেছিল লুকা মদ্রিচের হাতে। কিন্তু গত ১৫ বছরে এই প্রথম তারা নেই ব্যালন ডি’অরের দৌড়ে।

0 15,010

ফ্রেঞ্চ ম্যাগাজিন ফুটবলারদের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ মর্যাদার পুরস্কার ব্যালন ডি’অর ২০২২ সালে পেতে যাচ্ছেন করিম বেনজেমা, এটা প্রায় নিশ্চিত। দলীয় অর্জন, পারফরম্যান্স সবকিছু বিচারে তার ধারে কাছে নেই কেউ। তবুও তাকে অপেক্ষা করতে হবে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত। তার সঙ্গে দৌড়ে থাকা মোহামেদ সালাহ ও সাদিও মানের মধ্যে ইউরোপের নামকরা ক্রীড়া সংবাদকর্মী, ফুটবল কোচ ও বিশ্লেষকদের ভোটের ভিত্তিতেই ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিন জয়ীকে দেবেন ব্যালন ডি’অর।

এদিকে ২০০৭ সালের পর এই প্রথম ব্যালন ডি’অরের প্রতিযোগিতায় নেই একবিংশ শতাব্দীর ফুটবল বিশ্বের দুই মহাতারকা রোনালদো ও মেসি। বলা যায় প্রায় দেড় যুগ পর, ২০২২ সালে এসে আর্জেন্টাইন ও পর্তুগিজ তারকা থাকছেন না ব্যালন ডি’অরের আলোচনায়।

এক নজরে দেখে নেয়া যাক মেসি-রোনালদোর সে স্বর্ণালি যুগ:

২০০৭ সালে প্রথম বার ব্যালন ডি’অরের দৌড়ে সেরা তিনে জায়গা করে নেন এই দুই তারকা। ওই বছর তাদের পেছনে ফেলে ভোটাভুটিতে শেষ পর্যন্ত ৪৪৪ ভোট পেয়ে যোগ্য নির্বাচিত হন ব্রাজিলের কাকা। সেবার রোনালদো ২৭৭ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় ও মেসি ২৫৫ ভোট পেয়ে তৃতীয় হন।

এরপর শুরু হয় মেসি-রোনালদোর মূল যুদ্ধ। ২০০৮ থেকে ২০১৭, ব্যালন ডি’অরকে নিজেদের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলেন এই দুই মহাতারকা। ২০০৮ সালে মেসিকে ১৫৫ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে প্রথম বার ফ্রেঞ্চ ম্যাগাজিনের দেয়া বর্ষসেরার পুরস্কার জেতেন পর্তুগিজ তারকা। পরের বছর রোনালদোকে ২৪০ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে সেরা হন মেসি। ২০১০ সালে বশ্য দৌড়ে ছিলেন না রোনালদো। সেবার নিজের দুই ক্লাব সতীর্থ আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা ও জাভি হার্নান্দেজকে হারিয়ে ব্যালন ডি’অর জেতেন বার্সার সাবেক এই তারকা ফুটবলার।

এরপর ২০১১ সালে ফের দৌড়ে ফেরেন রোনালদো। তবে সেবারও তাকে পেছনে ফেলে হ্যাটট্রিক ব্যালন ডি’অর জেতেন আর্জেন্টাইন সুপার স্টার। আধিপত্য ধরে রাখেন পরের বছরও। পরবর্তী দুই বছর মেসিকে টপকে নির্বাচকদের ভোটে বিজয়ী হন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক তারকা রোনালদো। এরপর ২০১৫ সালে মেসি ফের নির্বাচকদের মন জয় করে নেন। ২০১৬ ও ২০১৭ সালে রিয়াল মাদ্রিদে দুর্দান্ত ফর্ম কাটিয়ে রোনালদো জেতেন তার চতুর্থ ও পঞ্চম ব্যালন ডি’অর পুরস্কার।

এরপর ২০১৮ সালে সেরা তিনের দৌড় থেকে ছিটকে পড়েন মেসি। সেবার রোনালদোকে ২৭৭ ভোটে হারিয়ে ব্যালন ডি’অর জেতেন ক্রোয়েশিয়ান তারকা লুকা মদ্রিচ। সবশেষ ২০১৯ ও ২০২১ মৌসুমে নিজের ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ ও সপ্তম ব্যালন ডি’অর জিতে রোনালদোকে পেছনে ফেলেন মেসি। করোনার কারণে মাঝে ২০২০ সালে ফ্রান্স ফুটবল পুরস্কারটি দেয়া বন্ধ রেখেছিল।

এদিকে ২০২২ সালে মেসি ও রোনালদোর যে পারফরম্যান্স তাতে ২০ জনের তালিকাতেও নেই তারা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.