রাতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে স্প্যানিশ সুপারকোপার ফাইনাল

0 13,781

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের কিং ফাহাদ স্টেডিয়াম যেন একের পর এক জায়ান্ট ম্যাচের পসরা সাজিয়ে বসছে। ১৯ জানুয়ারি এই মাঠেই লিওনেল মেসি, কিলিয়ান এমবাপে এবং নেইমারের পিএসজির মুখোমুখি হবে আল নাসর এবং আল হিলালের সম্মিলিত একাদশ। যে একাদশে থাকবেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোও। অর্থ্যাৎ, মেসি-রোনালদো আবারও মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন সৌদি আরবের রিয়াদে।

এর চারদিন আগেই সেই একই স্টেডিয়ামে বসছে আরেকটি মহারণ। এই মাঠেই আজ রাতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে স্প্যানিশ সুপারকোপার ফাইনাল। যে ম্যাচে মুখোমুখি দুই স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা। অর্থ্যাৎ, মরুর বুকেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে একটি সুপার এল ক্ল্যাসিকো লড়াই। বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

এক সময় এল ক্ল্যাসিকো মানেই মেসি-রোনালদোর দ্বৈরথ। ধীরে ধীরে সেই দ্বৈরথ শেষ হয়ে গেলো। প্রথমে রোনালদো স্পেন ছাড়লেন। এরপর ছাড়লেন মেসিও। তবে এবার মেসি-রোনালদো না থাকলেও এল ক্ল্যাসিকোয় উত্তাপ আছে। কারণ দুই দলে রয়েছেন দুই সেরা স্ট্রাইকার, করিম বেনজেমা এবং রবার্ট লেওয়ানডস্কি।

লড়াইয়ের ভেতর এই দু’জনের লড়াই দেখার জন্য মুখিয়ে রয়েছে ফুটবলপ্রেমীরা। বিশ্বকাপের পর এখনও পর্যন্ত এটাই হতে যাচ্ছে সবচেয়ে আকর্ষনীয় ফুটবল ম্যাচ।

Real barca

তবে, মেসি না থাকলেও সৌদির রাজধানী রিয়াদে অবস্থান করছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আল নাসরে যোগ দেয়ার কারণে সৌদি আরবই এখন তার বাসস্থান। এ কারণে শুক্রবার সাবেক সতীর্থদের সঙ্গে দেখাও করতে গিয়েছিলেন সিআর সেভেন। সেখানে গিয়ে ভিনিসিয়ুস জুনিয়র, কোচ কার্লো আনচেলত্তির সঙ্গে কিছু সময়ও কাটিয়েছেন তিনি। এরপর এক ফ্রেমে বন্দিও হয়েছেন তারা।

সৌদিতে থাকার কারণে গ্যালারিতে বসেই সাবেক ক্লাব সতীর্থদের সমর্থন জানাবেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। মেসি? তিনি প্যারিসে বসেই শুভ কামনা জানাবেন বার্সেলোনাকে।

স্প্যানিশ সুপারকাপ নতুন ফরম্যাটে শুরু হওয়ার পর এ নিয়ে তিনটিই অনুষ্ঠিত হচ্ছে সৌদি আরবে। গতবার এবং ২০১৯-২০ মৌসুমে শিরোপা জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। ২০২০-২১ মৌসুমে সুযোগ এলেও সেভিয়ার মাঠে অনুষ্ঠিত ফাইনালে অ্যাটলেটিকো বিলবাওয়ের কাছে হেরে রানার্সআপ হয়েছিল বার্সেলোনা।

শুধু তাই নয়, গত মৌসুম বার্সার শোকেসে একটি ট্রফিও যোগ হয়নি। ২০২১ সালের নভেম্বর কোচ হিসেবে জাভি বার্সায় যোগ দেওয়ার পর রিয়াল মাদ্রিদ চ্যাম্পিয়ন্স এবং দু’বার লা লিগা জিতেছে।

গুরুত্ব বিবেচনায় সুপারকাপ হয়তো বড় কোনো টুর্নামেন্ট নয়। তবে, বার্সেলোনা যে একটি শিরোপা জয়ের জন্য কতটা মুখিয়ে তা এবার তাদের প্রস্তুতি না দেখলে বোঝা যেতো না। এ কারণে রিয়াদের কিং ফাহাদ স্টেডিয়াম শিরোপা খরা কাটানোর সঙ্গে প্রতিশোধের মিশনও রবার্ট লেওয়ানডস্কিদের সামনে।

কারণ, এ মৌসুমের প্রথম এল ক্ল্যাসিকো জিতেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। গত বছরের মধ্য অক্টোবরে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে লিগে ৩-১ গোলে জিতেছিল লজ ব্লাঙ্কোজরা। যদিও সে হার মাথায়ও আনছেন না কাতালান কোচ জাভি। বরং সুযোগটি হেলায় হারাতে চান না তিনি, ‘আমরা দীর্ঘদিন কোনো ট্রফি জিততে পারিনি। আমাদের দেখাতে হবে, এটা জিততে চাই। আগামীকাল (আজ) দারুণ একটি সুযোগ আমাদের সামনে। ফাইনালে জেতার জন্য আমরা সবটুকুই করব।’

 

আইএইচএস/ jn

Leave A Reply

Your email address will not be published.