প্যারিস ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে থিতু হচ্ছেন নেইমার!

ফুটবল বিশ্বে তার আবির্ভাব হয়েছিল স্বপ্নের মতো। মাঠের মুন্সিয়ানায় গ্রেটদের পথেই এগোচ্ছিলেন। তবে চোট আর ইনজুরিতে যেন সব স্বপ্নই অধরাই থেকে যাচ্ছে ব্রাজিলের তারকা ফুটবলার নেইমার জুনিয়রের।

0 14,830

যেখানে বয়সের কোটায় ৩৫ পেরিয়েও মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসিরা। সেখানে মাত্র ৩০-এ নেতিয়ে পড়েছেন নেইমার।

কদিন আগেই জানিয়েছিলেন আসন্ন কাতার বিশ্বকাপেই হবে তার শেষ বিশ্বকাপ। সে সময় নেইমার বলেন, আমি ঠিক জানি না, মানসিক দিক থেকে আমি শক্তিশালী থাকতে পারব কি না। এ কারণেই এ বিশ্বকাপকেই নিজের শেষ বিশ্বকাপ মনে করছি আমি।

তাছাড়া কাতার বিশ্বকাপ নিয়ে নিজের পরিকল্পনায় নেইমার বলেন, ভালো একটি বিশ্বকাপ কাটানোর জন্য আমি সবকিছুই করব। দেশের হয়ে জিততে সর্বস্ব দেব। বিশ্বকাপ জয়ের আশৈশব স্বপ্নটাকে পূর্ণতা দিতে আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করব। আশা করছি, আমি পারব।

সম্প্রতি ‘ফেনেমেনোস’ পডকাস্টে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানালেন, পিএসজি ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকারে খেলতে চান তিনি।

তবে এখনই তেমন কিছু ঘটছে না। কারণ আগামী ২০২৫ সাল পর্যন্ত পিএসজির সঙ্গে চুক্তি রয়েছে তার। তবে তিনি জানিয়েছেন, ফুটবল ছাড়ার আগে যুক্তরাষ্ট্রের সকার লিগে একটা মৌসুম হলেও খেলতে চান তিনি।

নেইমারের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, ব্রাজিলে ফিরবেন কিনা। জবাবে পিএসজির ব্রাজিলিয়ান এ তারকা ফুটবলার বলেন, আমি জানি না আর কখনো ফিরব কিনা। এ নিয়ে আমার নিজেরই সন্দেহ আছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের লিগে খেলতে পারলে ভালো লাগবে।

যুক্তরাষ্ট্রে খেলতে আগ্রহ দেখানোর পেছনের কারণও জানালেন নেইমার। তিনি বলেন, সেখানে সাধারণত মৌসুম ছোট হয়। মাঝখানে ভালো বিরতি পাওয়া যায়। আর এটা কে না জানে যে, ব্রাজিলিয়ানরা একটু বেশি পাটি করে থাকে। সে ক্ষেত্রে নেইমারও কিছুটা অবসর পেতে চাইবেন।

এদিকে ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে এরই মধ্যে জায়গা করে নিয়েছে ব্রাজিল। এবারের বাছাইপর্বে এখন পর্যন্ত খেলা ১৫ ম্যাচের একটিতেও হারেনি তিতের শিষ্যরা। এরপরও ব্রাজিলের নতুন প্রজন্মের মধ্যে তেমন উচ্ছ্বাস চোখে পড়ছে না নেইমারের। অথচ একটা সময় ছিল, ব্রাজিলকে বলা হতো ফুটবল-পাগল দেশ। ব্রাজিলিয়ানদের শয়নে-স্বপনে ছিল ফুটবল।

নেইমার এখন পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে দুটি ফিফা বিশ্বকাপ খেলেছেন। ২০১৪ সালে নিজ দেশ ব্রাজিলে এবং সর্বশেষ ২০১৮ সালে রাশিয়াতে। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ১০ ম্যাচ খেলে এই স্ট্রাইকার ৬ গোল করার পাশাপাশি করিয়েছেন ৩ গোল। এর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রাজিলকে হট ফেবারিট ধরা হলেও তারা আশার প্রতিফলন দেখাতে পারেননি। 

Leave A Reply

Your email address will not be published.