টানটান উত্তেজনা, শ্বাসরুদ্ধকর এক লড়াই

0 20,316

একবার ইন্টার মিলান এগিয়ে যায় তো আরেকবার বার্সেলোনা। শেষদিকে এসে অবশ্য গোল খেয়ে হারের শঙ্কায় পড়ে গিয়েছিল জাভি হার্নান্দেজের দল।

কিন্তু যোগ করা সময়ে এসে বার্সাকে বাঁচিয়ে দিয়েছেন রবার্ট লেভানদোভস্কি। ন্যু ক্যাম্পে চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে ৬ গোলের রোমাঞ্চকর এক লড়াইয়ে ইন্টার মিলানের সঙ্গে ৩-৩ ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে স্বাগতিকরা।

ম্যাচে বল পজিশন ও আক্রমণে ইন্টার থেকে অনেক এগিয়ে ছিল বার্সেলোনা। কিন্তু ইন্টারও বার্সার রক্ষণভাগে ভীতি ছড়িয়েছে ভালোই। বার্সেলোনা ২৫ শটের ১১টি রাখতে পারে লক্ষ্যে, ইন্টারের ১১ শটের ৮টি ছিল লক্ষ্যে।

আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ চললেও প্রথম ৪০ মিনিট গোল পায়নি কোনো দল। বার্সাকে এগিয়ে দেন উসমান ডেম্বেলে। সার্জিও রবার্তোর পাস থেকে আলতো টোকায় গোল করেন ফরাসি উইঙ্গার (১-০)।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই (৫০ মিনিটে) সমতায় ফেরে ইন্টার। আলেসান্দ্রো বাস্তোনি বক্সে ক্রস বাড়ালে পিকে সেটা খেয়ালই করেননি। শিশুসুলভ ভুলে তিনি ছেড়ে দেন নিকোলাস বারেল্লাকে। গোল তুলে নিতে ভুল করেননি ইতালিয়ান মিডফিল্ডার (১-১)।

৬৩ মিনিটে ইন্টারকে এগিয়ে নেন লতারো মার্টিনেস। কালহানোগলুর ক্রস বুক দিয়ে নামিয়ে জোড়ালো শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার (২-১)।

৮২ মিনিটে কপালগুণে গোল পেয়ে যায় বার্সা। জটলা থেকে তার শট প্রতিপক্ষের একজনের পায়ে লেগে ঢুকে যায় জালে, গোলরক্ষকের তাকিয়ে থাকা ছাড়া কিছুই করার ছিল না (২-২)।

৮৯ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক থেকে ন্যু ক্যাম্পকে স্তব্ধ করে দেন বদলি খেলোয়াড় গোসেন্স (২-১)। ইন্টার তখন জয়ের আশায় প্রমাদ গুনছে। কিন্তু কে জানতো, রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে নাটকের আরও বাকি!

যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে নাটকীয়ভাবে বার্সাকে সমতায় ফেরান লেভানডোভস্কি। এরিক গার্সিয়ার ক্রস থেকে দারুণ এক হেডে বার্সাকে বাঁচান পোলিশ স্ট্রাইকার। শেষ পর্যন্ত ৩-৩ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

এক জয়, এক ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে ‘সি’ গ্রুপে নিজেদের আশা বাঁচিয়ে রাখলো তিন নম্বরে থাকা বার্সেলোনা। অন্যদিকে ২ জয় আর এক ড্রয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে ভালো অবস্থানে চলে গেলো ইন্টার। দিনের আরেক ম্যাচে ভিক্টোরিয়া প্লাজেনকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে বায়ার্ন মিউনিখ

Leave A Reply

Your email address will not be published.