ফুরফুরে মেজাজে মেসি

গত মৌসুমে পিএসজিতে সময়টা ভালো কাটেনি আর্জেন্টাইন মহাতারকা লিওনেল মেসির। নতুন মৌসুমের আগে অবশ্য জানিয়েছিলেন, দেখা যাবে সেরা ফর্মের মেসিকে। যেন কথা রাখার বার্তাই দিলেন তিনি। মৌসুমের প্রথম দুই ম্যাচেই পুরনো মেসিকে দেখেছে ভক্ত-সমর্থকরা। লিগ ওয়ানে দুরন্ত সূচনা পেয়েছে প্যারিসের জায়ান্টরাও।

0 14,824

খেলার ফাঁকে একটু অবসর মিলতেই বান্ধবী আন্তোনেল্লা রোকুজ্জোকে নিয়ে নৈশভোজে গেলেন মেসি। পরে সে ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামেও মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) শেয়ারও করেছেন মেসি। যদিও ছবিতে সন্তান কিংবা বন্ধুদের কাউকে দেখা যায়নি। হয়তো একান্তেই কিছুটা সময় কাটাতে চেয়েছেন দুজনে মিলে।

লিগ ওয়ানের উদ্বোধনী ম্যাচে মেসির জোড়া গোলের দিনে দারুণ সূচনা করে পিএসজি। গত ৬ আগস্টের ম্যাচটিতে পিএসজি ৫-০ গোলে উড়িয়ে দেয় ক্লেরমন্তকে।

এদিকে গত মৌসুমে সপ্তমবারের মতো ব্যালন ডি’অর জেতা আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি এবারের ৩০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকাতেই জায়গা পাননি, যা নিয়ে ক্ষুব্ধ সমর্থকরা। তবে মেসির এই তালিকায় জায়গা না পাওয়ার ব্যাখ্যাও দিয়েছে ফ্রান্স ফুটবল।

ফ্রান্স ফুটবলের পক্ষ থেকে এমানুয়েল বোয়ানের ব্যাখ্যাটি ছিল এমন, ‘২০০৬ থেকে মেসি টানা ১৫ বার জায়গা পেয়েছেন (তালিকায়), সাতবার জিতেছেন ব্যালন ডি’অর এবং এত এত শিরোপা জিতেছেন যে অবশ্যম্ভাবীভাবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় তার নামটা চলে আসে। ৩০ জনের এ তালিকা প্রস্তুতের সময় মেসি আলোচনায়ও ছিলেন। কিন্তু ব্যালন ডি’অরের জন্য নতুন যে মানদণ্ড ঠিক করা হয়েছে, তা মেসির পক্ষে ছিল না; খেলোয়াড়ের পুরো ক্যারিয়ার বিবেচনার বিষয়টি উঠে গেছে, নতুন মডেলে এক বর্ষপঞ্জি নয়, একটা মৌসুম বিবেচনা করা হয়েছে, যে কারণে ২০২১ সালের ১১ জুলাই কোপা আমেরিকা জয় বিবেচনায় আসেনি।’

মেসি যে ১৫ বার ব্যালন ডি’অরের সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা পেয়েছেন, তার মধ্যে সাতবারই জিতেছেন তিনি। এ ছাড়া সব মিলিয়ে ১৩ বার ছিলেন সেরা তিনে। শুধু ২০০৬ ও ২০১৮ সালের ব্যালনে সেরা তিনে জায়গা হয়নি মেসির।  

Leave A Reply

Your email address will not be published.