মহাসড়ক বন্ধক রেখে ১৫ কেটি টাকা ঋণ, তদন্ত চেয়ে রিট

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের উত্তরার আজমপুর অংশের মহাসড়কের সরকারি জমি বন্ধক রেখেই একটি বেসরকারি ব্যাংক থেকে ১৫ কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার ঘটনা তদন্ত চেয়ে রিট আবেদন করা হয়েছে।

0 8,132

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ওবায়েদ আহমেদ এ রিট দায়ের করেছেন বলে রোববার (২৪ এপ্রিল) গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তার আইনজীবী মো. তামজীদ হাসান।

আগামীকাল সোমবার (২৫ এপ্রিল) বিচারপতি মো.নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ রিটের ওপর শুনানি হকে পারে।

এ বেঞ্চের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক রিট আবেদনটির অনুলিপি পেয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, সরকারি জমি বন্ধক রেখে দুই দফায় ব্যাংক ঋণ হিসেবে ১৫ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন গোলাম ফারুক নামে এক ব্যক্তি। বিষয়টি ব্যাংক কর্তৃপক্ষের নজরে এলে জমির আসল কাগজপত্র চায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। পরে বন্ধকি জমির দাগ নম্বর পরিবর্তন করে আবারও ভুয়া কাগজপত্র ব্যাংকে জমা দেন ঋণগ্রহীতা। কিন্তু সংশোধিত দলিলের জমিতে বন্ধকি সম্পত্তির সাইনবোর্ড স্থাপন করতে গিয়ে ব্যাংক জানতে পারে সেটিও ভুয়া। সম্প্রতি একটি হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি গ্রেফতার করতে গিয়ে এমন তথ্য পেয়েছে র‌্যাব। বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশ পেলে দেশজুড়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.