রিয়াজের শ্বশুরের আত্মহত্যার ভিডিও সরাতে কাজ চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ

ফেসবুক লাইভে চিত্রনায়ক রিয়াজের শ্বশুর ব্যবসায়ী আবু মহসিন খানের আত্মহত্যার ভিডিওগুলো সরিয়ে ফেলার কাজ চালিয়ে যেতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

0 8,679

বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের বেঞ্চ এসব ভিডিও অপসারণ নিয়ে বিটিআরসির প্রতিবেদন দেখার পর এ আদেশ দেন।

আদেশে বলা হয়, ওই আত্মহত্যার ভিডিও অপসারণে আর্জি জানানো আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ যদি এ-সংক্রান্ত কোনো ভিডিও লিঙ্ক বিটিআরসিকে দেন, তা যেন সঙ্গে সঙ্গেই অপসারণ করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ২ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর ধানমন্ডির বাসায় ফেসবুক লাইভে এসে আত্মহত্যা করেন মহসিন। মুহূর্তেই এ ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে ছড়িয়ে পড়ে।

পরদিন ওই আত্মহত্যার বিষয়ে গণমাধ্যমে আসা বিভিন্ন প্রতিবেদন ও ভিডিওর বিষয়ে আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ আদালতের নজরে এনে তা অপসারণের  ‍আর্জি জানালে স্বতঃপ্রণোদিত রুলসহ আদেশ দেওয়া হয়।

আদেশে আবু মহসিন খানের আত্মহত্যার ভিডিও ফেসবুকসহ সব ধরনের অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকে অপসারণ করতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ ছাড়াও বুধবার আদালতে বিটিআরসির পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী খন্দকার রেজা-ই-রাকিব। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস।

মামলাটি দুই সপ্তাহের জন্য মুলতবি রেখে আদালত আগামী ১ মার্চ এ বিষয়ে পরবর্তী আদেশের জন্য দিন রেখেছেন বলে জানান আইনজীবী খন্দকার রেজা-ই-রাকিব।

শুনানিতে এ আইনজীবী জানান, ফেসবুক লাইভে এসে ব্যবসায়ী আবু মহসিন খানের আত্মহত্যার ২২৭টি ভিডিও লিঙ্ক চিহ্নিত করেছে বিটিআরসি। এর মধ্যে ২০২টি লিঙ্ক অপসারণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ফেসবুকে চিহ্নিত করা হয়েছে ২১১টি লিঙ্ক, তার মধ্যে ১৯০টি সরানো হয়েছে। ইউটিউবে চিহ্নিত করা ১০টি লিঙ্ক থেকে ছয়টি সরানো হয়েছে। এ ছাড়া লাইকি ও টিকটক থেকে তিনটি করে ভিডিও অপসারণ করা হয়েছে।

আদালতে জ্যেষ্ঠ বিচারক ফারাহ মাহবুব বলেন, ‘এ রকম ভিডিও থেকে কেউ উৎসাহ পাক–এটা আমরা কোনোভবেই চাই না। দেশের নাগরিক সুরক্ষিত থাকুক–এটাই আমাদের চাওয়া, আমাদের কাম্য।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.