৯ গোলের রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে রোনালদোদের হারালেন মেসিরা

0 12,653

মুখোমুখি বিশ্ব ফুটবলের সেরা দুই তারকা-লিওনেল মেসি আর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আদতে প্রীতি ম্যাচ হলেও এই লড়াই ঘিরে দর্শক উম্মাদনা ছিল আকাশচুম্বী। থাকবেই না বা কেন? দুই মহাতারকার হয়তো ক্যারিয়ারে এটাই শেষবারের মতো মুখোমুখি খেলতে নামা।

ফ্রান্সের পিএসজি বনাম সৌদি আরবের দুই ক্লাব আল নাসর এবং আল হিলালের খেলোয়াড়দের নিয়ে গড়া রিয়াদ একাদশের ম্যাচটি তাই প্রীতি ম্যাচ ছাপিয়ে হয়ে উঠে মেসি-রোনালদোর ম্যাচ। বহুল প্রতীক্ষিত এই লড়াইটি হতাশ করেনি ফুটবলপ্রেমীদের। পয়সা উসুল এক ম্যাচ উপভোগ করেছেন তারা।

jagonews24

সৌদি আরবের কিং ফাহাদ স্টেডিয়ামে এই প্রীতি ম্যাচে দুই দল মিলিয়ে করেছে ৯ গোল।হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর মেসি-নেইমার-এমবাপের পিএসজি ৫-৪ ব্যবধানে হারিয়েছে রোনালদোর রিয়াদ একাদশকে। ম্যাচে রোনালদো দুটি আর মেসি করেন একটি গোল।

গোলবন্যার এই ম্যাচে তৃতীয় মিনিটে নেইমারের অ্যাসিস্ট থেকে মেসি গোল করলে এগিয়ে যায় পিএসজি (১-০)। ৩৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে সমতা ফেরান রোনালদো (১-১)। এর পাঁচ মিনিটের মাথায় বার্নাট লাল কার্ড দেখলে দশজনের দলে পরিণত হয় পিএসজি।

তবে তাদের গতি কমেনি তাতে। ৪৩ মিনিটে এমবাপের অ্যাসিস্ট থেকে ২-১ করেন পিএসজির মারকুইনহোস। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে পেনাল্টি পায় পিএসজি। কিন্তু নেইমার সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি।
এর কিছুক্ষণ পরই আরও এক গোল করে সমতা ফেরান রোনালদো (২-২)।

jagonews24

দ্বিতীয়ার্ধে ৫৩ মিনিটে এমবাপের অ্যাসিস্ট থেকে ফের পিএসজিকে এগিয়ে দেন সার্জিও রামোস (৩-২)। তিন মিনিট পর জাঙের গোলে আবার সমতায় রিয়াদ একাদশ (৩-৩)।

৬০ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করেন কিলিয়ান এমবাপে (৪-৩)। পরের মিনিটেই রোনালদোকে উঠিয়ে নেন রিয়াদ কোচ। ৬২ মিনিটে একসঙ্গে পিএসজির মেসি, নেইমার, এমবাপেকে তুলে নেন কোচ।

এরপরও লড়াইটা ঝিমিয়ে পড়েনি। ৭৮ মিনিটে একিতিকে গোল করলে ৫-৩ ব্যবধানে এগিয়ে যায় পিএসজি। তবে হাল ছাড়েনি রিয়াদ একাদশ। ইনজুরি টাইমের চতুর্থ মিনিটে গোল করেন তালিসকা। শেষ পর্যন্ত ৫-৪ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পিএসজি।

 

এমএমআর/ইএ jn

Leave A Reply

Your email address will not be published.