১৯ জেলায় ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস, সতর্কসংকেত

দেশের ১৯ জেলার ওপর দিয়ে কিলোমিটার বেগে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বজ্রবৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। তাই এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

0 9,937

মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের নদীবন্দরগুলোর আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে জানানো হয়, রংপুর, দিনাজপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ অথবা দক্ষিণপূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। তাই এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর (পুনঃ) ১ নম্বর সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এছাড়া, সারা দেশের সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে। পরবর্তী ৩ দিন বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কমতে পারে।

এ সময় সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। এছাড়া, রাজশাহী, পাবনা, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম, খুলনা, যশোর এবং কুষ্টিয়া জেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মৃদু তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে বলেও জানানো হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা, রাঙ্গামাটি ও সিরাজগঞ্জের তাড়াশে মঙ্গলবার সর্বনিম্ন ২৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। আগের দিন সোমবার (২২ আগস্ট) রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, ভারতের উত্তর মধ্যপ্রদেশ এবং তার কাছাকাছি এলকায় অবস্থানরত স্থল নিম্নচাপটি বর্তমানে পশ্চিম মধ্য প্রদেশ এবং তার কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, স্থল নিম্নচাপ কেন্দ্রস্থল, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বাড়তি অংশ উত্তরপূর্ব বঙ্গোপাসাগরে অবস্থান করছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

ঢাকায় মঙ্গলবার সকাল থেকে দক্ষিণ অথবা দক্ষিণপূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ১০ থেকে ১৫ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হচ্ছে। এদিন সকালে ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৯৪ শতাংশ।

রাঙামাটিতে মঙ্গলবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৯৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ সময় ফরিদপুরে ৮৯, নেত্রকোনা ও নোয়াখালীর মাইজদীকোর্টে ৬৪, ফেনীতে ৬২, কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৪৫, চাঁদপুরে ৪৪, সিলেট ও পটুয়াখালীর খেপুপাড়ায় ৩৯, তাড়াশে ৩৮, চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে ৩৬, গোপালগঞ্জে ৩০, চুয়াডাঙ্গা ও কক্সবাজারের টেকনাফে ২৭, ঢাকায় ২৬, পটুয়াখালীতে ২৫, নোয়াখালীর হাতিয়ায় ২২, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ২১, টাঙ্গাইল ও ভোলায় ১৯, মাদারীপুরে ১১ এবং বরিশালে ১০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। এ ছাড়া কিশোরগঞ্জের নিকলি, রাজশাহী, পাবনার ঈশ্বরদী, বগুড়া, কুড়িগ্রামের রাজারহাট, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, কক্সবাজার, খুলনা, বাগেরহাটের মোংলা এবং সাতক্ষীরাসহ বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

মঙ্গলবার ঢাকায় সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬টা ২৫ মিনিটে এবং বুধবার (২৪ আগস্ট) সূর্যোদয় ভোর ৫টা ৩৭ মিনিটে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.