এমবাপ্পের হ্যাটট্রিক, নেইমারের জোড়া গোলে বিধ্বস্ত লিল

কিলিয়ান এমবাপ্পের গোলের হ্যাটট্রিক, নেইমার জুনিয়রের জোড়া গোলের পাশাপাশি অ্যাসিস্টের হ্যাটট্রিক। গোলের দেখা পেয়েছেন আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি ও আশরাফ হাকিমিও। পিএসজি তারকাদের গোল উৎসবের দিনে লিল বিধ্বস্ত হয়েছে ৭-১ গোলের বড় ব্যবধানে।

0 12,890

লিগ ওয়ানে রোববার (২১ আগস্ট) রাতের ম্যাচে পুরোপুরি আধিপত্য করে খেলেছে পিএসজি এমনটা বলা যাবে না। কারণ আক্রমণ বা বল দখলে কোথাও পিছিয়ে ছিল না স্বাগতিকরা। গোলের উদ্দেশে তারা শট নিয়েছে পিএসজির সমান ১৬টি। আবার গোলমুখের শট মেসিদের তুলনায় একটি বেশি ছিল লিলের। মোট ১০টি শট নিলেও তাদের নেয়া বেশিরভাগ শটই ছিল দুর্বল। ফলে খুব বেশি পরীক্ষা দিতে হয়নি জিয়ানলুইজি দোন্নারুম্মাকে।

অন্যদিকে পিএসজি সাফল্যের দেখা পেয়েছে একেবারে শুরুর দিকেই। ম্যাচ শুরুর প্রথম মিনিটেই দলকে লিড এনে দেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগের ফুটবলারদের উপর দিয়ে মেসির বাড়ানো শট ডি বক্সের বাইরে থেকে লিল গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে জালে পাঠান এমবাপ্পে।

মাত্র ৮ সেকেন্ডেই এগিয়ে যায় পিএসজি। পাঁচ মিনিট পর বামবার শট ঠেকিয়ে পিএসজির ত্রাতা দোন্নারুম্মা। ম্যাচের ২৫ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে নেইমারের বাড়ানো পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এগিয়ে যান এমবাপ্পে। গোলরক্ষককে একা পেয়েও বল জালে জড়াতে পারেননি তিনি। নিজের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চলে যান লাইনের বাইরে। তার নেয়া শট আঘাত করে বারের বাইরে।

দুই মিনিট পর নুনো মেন্দেজ ও লিওনেল মেসি নিজেদের মধ্যে বল দেয়া নেয়া করে ঢুকে পড়েন প্রতিপক্ষের বক্সে। শেষ দিকে বাম প্রান্ত থেকে মেন্দেজের বাড়ানো পাস নিখুঁত শটে জালে জড়ান মেসি। ৩৯ মিনিটে গোল উৎসবে যোগ দেন আশরাফ হাকিমি।

নেইমারের বাড়ানো পাস ডি বক্সে ঢুকে সরাসরি জালে জড়ান তিনি। এর চার মিনিট পর ডি বক্সের বাইরে থেকে মেসির আলতো পাস বক্সে ঢুকে জোরালো শটে জালে পাঠান নেইমার। ৫২ ‍মিনিটে হাকিমি প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগ থেকে কৌশলে বল কেড়ে নিয়ে এমবাপ্পেকে পাস দেন।

ফরাসি তারকা গোলের উদ্দেশে শট নিলেও তা ঠিকঠাক পায়ে লাগেনি। বল চলে যায় অপরপ্রান্তে দাঁড়িয়ে থাকা নেইমারের কাছে। কিছুটা এগিয়ে এসে জোরালো শটে বল জালে পাঠান ব্রাজিলীয় এ তারকা। টানা দুই ম‍্যাচে জোড়া গোল করলেন নেইমার। লিগে তিন ম‍্যাচে তার গোল পাঁচটি। ৫৪ মিনিটে ব‍্যবধান কমায় লিল। বামবার প্রথম শট কোনোমতে ঠেকিয়ে দেন দোন্নারুম্মা। তবে বিপদমুক্ত করতে পারেননি দলকে। ফিরতি বলে বুলেট গতির শটে জাল খুঁজে নেন বামবা।

৫৭ মিনিটে মেসির নেয়া দুর্বল শট প্রতিহত করেন লিলের গোলরক্ষক। ৬৬ মিনিটে দলের ষষ্ঠ ও নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন এমবাপ্পে। মাঝ মাঠ নেইমারকে বল বাড়িয়ে দ্রুত গতিতে ডি বক্সের দিকে ছুটে যান তিনি। বল ফিরে পেয়ে পেনাল্টি স্পটের কাছ থেকে দারুণ দক্ষতায় বল জালে জড়ান ফরাসি তারকা। ৮৭ মিনিটে হ‍্যাটট্রিক পূরণ করেন এমবাপ্পে। প্রতি আক্রমণ থেকে বল পেয়ে নেইমার বল বাড়ান তার উদ্দেশে। বল নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে প্রতিপক্ষের জালে আঘাত হানেন ফরাসি তারকা।

লিলকে উড়িয়ে দিয়ে আসরে টানা তৃতীয় জয় পেল পিএসজি। ৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগ ওয়ানের শীর্ষে মেসিরা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.