বেনজেমাই পাচ্ছেন ব্যালন ডি’অর, সন্দেহ নেই মেসির

অধিকাংশের মতে এবারের ব্যালন ডি’অরের সবচেয়ে বড় দাবিদার রিয়াল মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড করিম বেনজেমা। ৩৪ বছর বয়সী ফরাসি তারকা কাটিয়েছেন স্বপ্নের মতো এক মৌসুম। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর বিদায়ের পর লস ব্লাঙ্কোসদের আক্রমণভাগের অলিখিত নেতা বেনজেমাই। চার ম্যাচ হাতে রেখে লা লিগা জয়ের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও লিভারপুলকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। আর রাজকীয় মাদ্রিদের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের যাত্রায় সারথি ছিলেন দলের 'নাম্বার নাইন' বেনজেমা। তাই লিওনেল মেসিও মনে করেন এবারের ব্যালন ডি'অর বেনজেমাই পাচ্ছেন।

0 15,010

৪৬ ম্যাচে ৪৪ গোল। যার মধ্যে লা লিগায় ৩২ ম্যাচে ২৭ গোল নিয়ে লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ১২ ম্যাচে ১৫ গোল। গোলের পাশাপাশি সব মিলিয়ে গিলে সহায়তা করেছেন ১৫ বার। এগুলো এ মৌসুমে করিম বেনজেমার পরিসংখ্যান। ক্যারিয়ারে এর আগে কখনো এক মৌসুমে ৩২ গোলের বেশি করতে না পারা ফরাসি তারকা এবার ছাড়িয়ে গেছেন নিজেকে। নিজেকে বললে কমই বলা হয় বলতে হয় ছাড়িয়ে গেছেন সবাইকে। পরিসংখ্যানে যা বলছে বেনজেমার কীর্তি তো তার চেয়েও বড়।

আর তাই রিয়াল মাদ্রিদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার সাবেক তারকা লিওনেল মেসিও মুগ্ধ বিগবেঞ্জের পারফরম্যান্সে। সাতবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসি মনে করেন, এই মৌসুমে বেনজেমাই  পাচ্ছেন ব্যালন ডি’অর। এর আগে কখনো সেরা তিনে না থাকা এই ফরাসির আসলে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বীই নেই। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে সে মীমাংসা হয়ে গেছে।

পিএসজির হয়ে বিস্মরণযোগ্য এক মৌসুম কাটানো মেসি বলেন, এটাতে কোনো সন্দেহ নেই। এটা পরিষ্কার যে, বেনজেমা দারুণ একটা মৌসুম কাটিয়েছেন এবং এটি শেষ হয়েছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা মাথায় নিয়ে। রাউন্ড অফ সিক্সটিন থেকে প্রতিটি ম্যাচে তার ভূমিকা ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।  আমি মনে করি, এ বছর এটা (ব্যালন ডি’অর) নিয়ে কোনো সন্দেহ থাকার কথা নয়।’

সাত বারের ব্যালন জয়ী মেসিই সবশেষ ব্যালন ডি’অর জয়ী। মেসি-রোনালদোর বাহিরে ২০১৮ সালে মদ্রিচ জিতেছিলেন এই মর্যাদাসম্পন্ন পুরস্কার। ২০২০ সালে দুর্দান্ত ফুটবল খেলেও করোনা মহামারির কারণে বঞ্চিত হন বায়ার্ন মিউনিখের রবার্ট লেভানদোভস্কি। করোনা মহামারির জন্য সেবার পুরস্কারটি দেওয়াই হয়নি। তা নিয়ে সে সময় ব্যাপক বিতর্ক হয়। ২০২১ সালের ব্যালন ডি’অরে তাকে ফের পেছনে ফেলেন মেসি। তবে সে পুরস্কার নিয়েও সে সময়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছিল। 

Leave A Reply

Your email address will not be published.