করোনা: আরও একটি খাওয়ার ট্যাবলেটের অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্রের

ফাইজারের মুখে খাওয়ার ট্যাবলেট প্যাক্সলোভিড অনুমোদনের একদিন পর আরও একটি করোনার মুখে খাওয়ার ওষুধের অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। করোনা প্রতিরোধী ট্যাবলেট মলনুপিরাভির ব্যবহারের অনুমোদন দিলে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন সংস্থা (এফডিএ)।

0 4,144

কর্তৃপক্ষ বলছে, আক্রান্তের পর উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা রোগীদের ক্ষেত্রে এই ওষুধ মৃত্যুর হার ৩০ শতাংশ কমাতে পারে। ওমিক্রন সংক্রমণ রোধে ট্যাবলেটটি বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

এবার আরও একটি করোনার মুখে খাওয়ার ওষুধের অনুমোদন দিল যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার বহুজাতিক ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা মের্ক অ্যান্ড রিজব্যাকের তৈরি মুখে খাওয়ার করোনার ওষুধ মলনুপিরাভির অনুমোদন দিয়েছে সংস্থাটি।

তবে মের্কের এন্টিভাইরাল ট্যাবলেটটি ১৮ বছরের কম বয়সী কেউ গ্রহণ করতে পারবে না। অনুমোদন মেলেনি অন্তঃসত্ত্বা নারীদের ক্ষেত্রেও। সাধারণত করোনার উপসর্গ দেখা দেওয়ার পাঁচ দিনের মধ্যেই এই ওষুধ গ্রহণ করতে হবে। কর্তৃপক্ষ বলছে, সংক্রমণের পর উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা রোগীদের ক্ষেত্রে ট্যাবলেটটি মৃত্যুর হার ৩০ শতাংশ কমাতে পারে।

এদিকে, একদিন আগেই ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি মুখে খাওয়ার করোনা ট্যাবলেট প্যাক্সলোভিড অনুমোদন দেয় মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থাটি। যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিনিয়ত বাড়ছে করোনায় আক্রান্তদের সংখ্যা। এতে করে ওষুধগুলো করোনা সংক্রমণ রোধ এমনকি নতুন ধরন ওমিক্রন রুখতেও সহায়ক হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এর আগে চলতি বছর বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে বহুজাতিক ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা মের্ক অ্যান্ড রিজব্যাকের তৈরি মুখে খাওয়ার করোনার ওষুধ মলনুপিরাভির অনুমোদন দিয়েছিল যুক্তরাজ্য।

Leave A Reply

Your email address will not be published.