রোনালদো-ম্যানইউ চুক্তির আদ্যোপান্ত ও সম্ভাব্য গন্তব্য

২০২১ সালে য়্যুভেন্তাস থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। রেড ডেভিল সমর্থকদের জন্য এ ছিল ঘরের ছেলের ঘরে ফেরা। ম্যানচেস্টারের ঐতিহ্যবাহী দলটি এই পর্তুগিজের ছোঁয়ায় অতীত ফিরে পাবে–এমনটাই ছিল তাদের আশা। কিন্তু রোনালদো জ্বলে উঠলেও রেড ডেভিলদের হারানো অতীত ফিরে আসেনি। বরং লিগে ষষ্ঠ হয়ে হারায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার সুযোগ। তাই চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার স্বপ্নে বিভোর রোনালদো ফের ছাড়ছেন ওল্ড ট্রাফোর্ড।

0 16,959

দ্বিতীয় দফায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফিরে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৩৮ ম্যাচ খেলে ২৪ গোল করেন পর্তুগিজ মহাতারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। প্রিমিয়ার লিগের তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা হলেও দলের পারফরম্যান্সে বিফলে গেছে তার সব প্রচেষ্টা। লিগে ষষ্ঠ হয়ে শেষ করা রেড ডেভিলরা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকেও বিদায় নিয়েছে শেষ ষোলো থেকেই। ঘরোয়া কাপেও ব্যর্থ তারা। তাই ক্যারিয়ার সায়াহ্নে থাকা রোনালদো ম্যানচেস্টারের লাল জার্সিকে ভালোবাসলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলতে যেতে চান অন্য কোথাও। তাই দলকে জানিয়ে দিয়েছেন নিজের নতুন দল খোঁজার বিষয়টি।

তবে ছাড়তে চাইলেও রোনালদো এত সহজে ছাড়তে পারছেন না ক্লাব। কারণ, রেড ডেভিলদের সঙ্গে তার চুক্তির বাকি এখনো এক বছর। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সঙ্গে তার চুক্তি, বেতন ও ভবিষ্যৎ গন্তব্যের দিকে একটু আলোকপাত করা যাক

রোনালদোর সঙ্গে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে ২০২৩ সালেও ৩০ জুন।  তবে ক্লাব চাইলে এই চুক্তি আরও এক বছর বৃদ্ধি করতে পারবে। সে ক্ষেত্রে ৩৭ বছর বয়সী তারকার চুক্তি শেষ হবে ২০২৪-এর ৩০ জুন। ২০২১-এর আগস্টে প্রাথমিকভাবে দু-বছরের চুক্তিতে তাকে য়্যুভেন্তাস থেকে দলে ভেড়ায় তারা। ২০২৩ সালে চুক্তির মেয়াদ শেষ হতে হতে রোনালদোর বয়স দাঁড়াবে ৩৮ বছর ৪ মাস।

ডেইলি মেইলের খবর বলছে, চুক্তি অনুযায়ী তিনবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগজয়ী ক্লাবটি থেকে রোনালদো প্রতি সপ্তাহে বেতন পান ৩৮৫০০ হাজার পাউন্ড।  সে অনুযায়ী ওল্ড ট্রাফোর্ড থেকে বছরে ২০ মিলিয়ন পাউন্ড বেতন হিসেবে পাচ্ছেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকা। এর বাইরে পারফরম্যান্স বোনাস ও অন্যান্য আর্থিক সুবিধাদি তো আছেই।

রোনালদোর ম্যানচেস্টার ছেড়ে অন্য ক্লাবে যাওয়ার চিন্তার পেছনে প্রধান কারণ মূলত চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলা। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই নিয়মিত এ টুর্নামেন্টে খেলে আসছেন এই পর্তুগিজ কিংবদন্তি। স্পোর্টিং সিপি থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, তারপর রিয়াল মাদ্রিদ-য়্যুভেন্তাস ঘুরে ফের রেড ডেভিলদের ডেরায় পা রাখা রোনালদো সব ক্লাবের হয়েই নিয়মিত খেলেছেন এই মর্যাদাপূর্ণ আসরে। পাঁচবার শিরোপার স্বাদ পাওয়া এই পর্তুগিজ টুর্নামেন্টটির ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোল ও অ্যাসিস্টের মালিক।

তাই ক্যারিয়ারের শেষ প্রান্তে দাঁড়িয়ে বাকি সময়টাও খেলতে চান নিয়মিত। লিগে সেরা চারে না থাকায় ম্যনচেস্টার ইউনাইটেড এবার খেলবে দ্বিতীয় সারির প্রতিযোগিতা ইউরোপা লিগে। ক্যারিয়ারে কখনোই এই টুর্নামেন্টে খেলেননি পর্তুগিজ যুবরাজ। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রতি ভালোবাসা ও সাফল্যের জন্য ‘মিস্টার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ’খ্যাত রোনালদো তাই খুঁজছেন এমন ক্লাব, যেখানে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের চ্যালেঞ্জ নিতে পারবেন।

তবে কথা হলো, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়লে রোনালদো যাবেন কোথায়? সর্বকালের অন্যতম সফল ফুটবলারটির বয়স ৩৭ পেরিয়ে গেলেও তার প্রতি আগ্রহী ক্লাবের সংখ্যা কম নয়। ইউরোপের বেশ কয়েকটি জায়ান্ট ক্লাব তাকে দলে নিতে আগ্রহী। রোনালদোর পরবর্তী গন্তব্য হিসেবে এ মুহূর্তে সবচেয়ে জোরালো গুঞ্জন বুন্দেসলিগা জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখ ও প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব চেলসিকে নিয়ে। লেভানদোভস্কির সম্ভাব্য দলবদলে তার বিকল্প হিসেবে আক্রমণভাগের নেতৃত্বে রোনালদোর কথা ভাবছে ক্লাবটি। চেলসিকে নিয়েও আছে জোরালো গুঞ্জন। এরই মধ্যে রোনালদোর এজেন্ট জর্জ মেন্দেসের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন চেলসির মালিক টেড বোহেলি।

রোনালদো ফিরতে পারেন সিরি ‘আ’-তেও। ইতালিয়ান লিগে নাপলি ও রোমা আগ্রহী রোনালদোকে দলে ভেড়াতে। রোমার দিকে পাল্লা হেলছে আরও এক কারণে। সেখানে কোচ হিসেবে আছেন আরেক পর্তুগিজ হোসে মরিনহো। রিয়াল মাদ্রিদে দুজনের রসায়নটা কতটা জোরালো ছিল তা সবারই জানা। তেমনটি হলে গুরু-শিষ্যের ফের মিলন হতে পারে।

গুঞ্জন আছে রিয়াল মাদ্রিদ ও পিএসজিকে নিয়েও। মাদ্রিদের জায়ান্টদের চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতানো তারকাকে নিয়ে এখনো আগ্রহ আছে ক্লাব কর্তৃপক্ষের। অন্যদিকে মেসি-এমবাপ্পে-রোনালদো ত্রয়ীকে নিয়ে আক্রমণভাগ সাজানোর সুযোগ পেলে যে ক্লাবটি লুফে নেবে তা বলাই বাহুল্য। হাতে গোনা কয়েকটি ক্লাবের একটি তারা, যারা রোনালদোর উচ্চ পারিশ্রমিক দেয়ার ক্ষমতা রাখে।

তবে অনেকেই আবার স্বপ্ন দেখেছেন রোনালদোর শৈশবের ক্লাবে ফেরার। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, এমন সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.