সব দলের অংশগ্রহণ চান নতুন সিইসি

আসছে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব দলকে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সদ্য নিয়োগ পাওয়া প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। তিনি বলেছেন, ‘আপনারা আসেন, নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন।’

0 10,273

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর পরীবাগে নিজের বাসায় সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন কাজী হাবিবুল আউয়াল।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘আওয়ামী লীগ তো নির্বাচন করবেই। যারা বলছেন নির্বাচন করবেন না, সেসব দলগুলোর প্রতি আমাদের অবশ্যই একটা আবেদন থাকবে যে, আপনারা আসেন, নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন।’


তিনি বলেন, ‘রাজনৈতিক দল মানেই নির্বাচন করবে। সেটা বিএনপি হোক, যা ই বলি না কেন। অ্যাট লিস্ট (অন্তত) তাদেরকে তো দাওয়াত করতেই হবে, আমন্ত্রণ জানাতে হবে।’

নির্বাচন কমিশন গঠনের তোড়জোড় শুরু হওয়ার পর থেকেই আলোচনার শীর্ষে ছিলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাবেক এই সিনিয়র সচিব। বিসিএস ১৯৮১ ব্যাচের এই কর্মকর্তা কর্মজীবন শুরু করেন জেলা মুন্সেফ হিসেবে। দীর্ঘ কর্মজীবনে তিনি সততা ও দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্বপালন করেন। সিইসির দায়িত্ব পাওয়া কাজী হাবিবুল আউয়াল সবশেষ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব ছিলেন।

তার নাম প্রস্তাব করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ আরও অনেকে।

একজন দক্ষ, মেধাবী কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত বিচার বিভাগের কর্মকর্তা হাবিবুল আউয়াল আইন মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগে সুপারনিউমারারি (স্বল্প সময়ের জন্য) সচিব ছিলেন। সেখান থেকে তাকে রাষ্ট্রপতির ১০ শতাংশ কোটায় প্রথমে ধর্মসচিব এবং পরে প্রতিরক্ষাসচিব হিসেবে প্রেষণে নিয়োগ দেওয়া হয়। পরে ২০১৪ সালের ১৮ জুন তার চাকরির মেয়াদ এক বছর বাড়ায় সরকার।

২০১৫ সালের ১৭ জানুয়ারি অবসরোত্তর ছুটিতে (পিআরএল) যাওয়ার কথা ছিল হাবিবুল আউয়ালের। কিন্তু ২০১৫ সালের ২১ জানুয়ারি পিআরএল বাতিল করে তাকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব হিসেবে এক বছরের চুক্তিতে নিয়োগ দেয় সরকার। পরে সেই চুক্তির মেয়াদ আরও এক বছর বাড়ানো হয়। ২০১৭ সালে অবসরে যান তিনি।

কাজী হাবিবুল আউয়াল ছাড়াও চারজনকে নির্বাচন কমিশনার (ইসি) করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। তারা হলেন- সাবেক সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমান, সাবেক সিনিয়র সচিব আলমগীর হোসেন খান, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আহসান হাবীব খান ও সাবেক জেলা জজ রাশিদা সুলতানা

 

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.