প্রকাশ্যে মেসিকে ধমকেছেন তার সতীর্থ!

প্যারিসে সময়টা ভালো কাটছে না মেসির। লিগে ১৬টি ম্যাচ খেলে ফেললেও গোল পেয়েছেন মোটে ২টি। কাতালান ক্লাব বার্সার ইতিহাসের এই সেরা খেলোয়াড় ক্যারিয়ার জুড়ে গোল করেছেন মুড়িমুড়কির মতো। কিন্তু পার্ক দে প্রিন্সে গিয়ে কী যে হলো মেসির গোলের পথটাই যে ভুলতে বসেছেন। বড্ড বিবর্ণ মেসি এখন যেন দলের বোঝা। প্যারিসে যে উৎসাহ নিয়ে মেসিকে বরণ করে নিয়েছিলো প্যারিসের ভক্তরা, এখন সেই জনপ্রিয়তা কমছে হুহু করে। নিজের দলের খেলোয়াড়দের কাছেও মেসি পাচ্ছেন না প্রাপ্য সম্মান। মাঠে প্রকাশ্যে মেসিকে ধমক দিয়েছে তার পিএসজি সতীর্থ।

0 15,933

ফরাসি সংবাদ মাধ্যম লেকিপে জানাচ্ছে, তার পিএসজি সতীর্থ দানিলো পেরেইরা জনসম্মুখেই ধমক দিয়েছেন তাকে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নক আউট পর্বে রিয়াল মাদ্রিদের সাথে প্রথম লেগের খেলার সময় ঘটনাটি ঘটে।

ফরাসী দল পিএসজি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নক আউট পর্বের ম্যাচে মুখোমুখি  হয়েছিলো স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের সাথে। সেদিনের ম্যাচে মেসি মিস করেছেন পেনাল্টি। তাতে মেসি রেকর্ড গড়েছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সর্বোচ্চ পেনাল্টি মিসের। এই পারফরম্যান্সের পর ফরাসী পত্রিকা লেকিপে তাদের ম্যাচ রেটিংয়ে মেসিকে দিয়েছিল ১০ এর মধ্যে চার! ভাগ্যিস এমবাপ্পের গোলে সেদিন নিজেদের মাঠে জয় পেয়েছিলো পিএসজি। নতুবা খলনায়কের খেতাব জুটে যেত সাত বারের ব্যালন ডি অর জয়ী মেসির নামের সামনে।

ম্যাচে খুব একটা খারাপ খেলেছেন তাও নয়। বেশকিছু সুযোগ এনে দিয়েছিলেন সতীর্থদের। কিন্তু আগের মতো খেলতে পারছেন কই! গোল পাচ্ছেন না, চোখে পড়ছে ফিনিশিংয়ে  দুর্বলতা। আর পুরনো অভিযোগ উঠছে নতুন করে। বার্সা কিংবা আর্জেন্টিনা, কোথাও মেসি সেভাবে রক্ষণভাগকে সাহায্য করতেন না। হালকা চালে হেঁটে বেড়াতে বেড়াতে হুট করে একটা বল ধরে দৌড়ে, ড্রিবলিংয়ে ছিটকে ফেলে গোল করাই মেসির অভ্যাস। নতুন দলে গোল না পাওয়ায় সেই অভ্যেসটাই এবার সমালোচনার জন্ম দিচ্ছে।

রিয়ালের বিরুদ্ধে ম্যাচেই রিয়ালের অর্ধে মেসি তার পা থেকে বল হারান। কিন্তু সেই বল পুনরুদ্ধারে কোন চেষ্টাই করেননি মেসি। বল পেয়ে কাউন্টার অ্যাটাকে পিএসজির অর্ধে ধুকে পড়েন রিয়ালের ভিনিসিয়াস। তাকে আটকাতে ফাউল করেন দানিলো পেরেইরা।

ফাউল করাতে হলুদ কার্ড দেখেন পিএসজির ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার দানিলো। আর এতেই মেজাজ হারিয়ে সবার সামনেই ধমক দেন মেসিকে। মেসি বল হারানোর পর কেন রিয়াল মাদ্রিদ থেকে বলটা কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করেননি সে কারণে তাকে রীতিমতো ধমকে দিচ্ছিলেন, জানাচ্ছে ফরাসি সংবাদ মাধ্যম লেকিপে।

আক্রমণে ধার নেই, রক্ষণেও অংশ নেন না -এমন খেলোয়াড় যে দলের বোঝা তা বুঝলেও হয়তো পিএসজির খেলোয়াড়রা মুখে বলেন না। তবে মেসিকে একহাত নিয়েছেন পিএসজিরই সাবেক ফরোয়ার্ড জ্যাঁ রোদে। বলেন,  ‘দলের জন্য মেসি একটা বোঝা। তার সময়গুলো ভালো কাটেনি। পিএসজির সঙ্গে মেসির সম্পর্কটা সফলতার ধারে কাছেও নেই। তার দলবদলের সিদ্ধান্তটি খুবই বাজে ছিল।’

মেসিকে সর্বকালের সেরা ফুটবলার মেনে নিলেও তার যে সমালোচনা করা যাবে না ,এমনটা মানতে রাজি নন জ্যাঁ রোদে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.