বৃষ্টি ভেজাতে পারে আরও তিন দিন

শুক্রবার সকাল থেকেই ঢাকার আকাশ মেঘে ঢাকা ছিল। বেলা গড়াতেই সেই মেঘ বৃষ্টি হয়ে পড়তে থাকে। দুপুরের দিকে রাজধানীসহ কোথাও কোথাও মাঝারি বর্ষণ হলেও বিকেলের দিকে বৃষ্টি কমে। যদিও এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত (রাত ৮টা) এখনও রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে।

0 11,385

এদিকে মাঘের শেষে হঠাৎ বৃষ্টিতে সারা দেশে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। কনকনে ঠাণ্ডা বাতাসের সঙ্গে দিনভর চলা বৃষ্টিতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। শৈত্যপ্রবাহ কেটে গেলেও হিমেল হাওয়া ও বৃষ্টিতে শীত বেড়েছে।

বৃষ্টির এই প্রবণতা আগামী তিনদিন থাকতে পারে। এই তিনদিনের শেষভাগে বৃষ্টির এমন প্রবণতা কেটে যেতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। যদিও ৯ ফেব্রুয়ারির পর আবারও বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে।

৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ছয়টায় দেওয়া পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরণের বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। শেষ রাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তিভাবে হালকা থেকে মাঝারী ধরণের কুয়াশা পড়তে পারে।

তাপমাত্রার অংশে বলা হয়েছে, বৃষ্টিপাতের প্রবণতায় এসময়ে সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে। দেশের উত্তরাঞ্চলে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং দেশের দক্ষিণাঞ্চলে তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত কমে যেতে পারে।

এদিকে, দুপুরের বৃষ্টিতে শুক্রবার জুম্মার নামাজে মসজিদে যেতে মুসল্লিদের ভোগান্তিতে পড়তে হয়। এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়, যাতে ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ মানুষ।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৫৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। শনিবার মধ্যরাতের পর কমতে পারে বৃষ্টি। বৃষ্টির প্রভাবে তাপমাত্রা কমলেও বৃষ্টি শেষে তা আরও কমবে। ৯ ফেব্রুয়ারির পর আবারও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।


এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি ৪৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে দক্ষিণের জেলা খুলনায়। এছাড়া দিনাজপুরে ৪১ মিলিমিটার, সিরাজগঞ্জের তাড়াশ ও পাবনার ইশ্বরদীতে ৩৫ মিলিমিটার, রংপুরে ৩৪ মিলিমিটার, গোপালগেঞ্জে ২৬ মিলিমিটার এবং ঢাকায় ১১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস।

তবে, চট্টগ্রামসহ পার্বত্য অঞ্চল, নোয়াখালী এবং কক্সবাজার জেলায় কোনো বৃষ্টিপাত হয়নি।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়, ১১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে রাঙামাটিতে ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৮ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর আর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
Leave A Reply

Your email address will not be published.