মেট্রোরেলে চড়ে উচ্ছ্বাস, ‘মনে হচ্ছে দেশের বাইরে আছি’

0 13,847

 

প্রথমবারের মতো মেট্রোরেলে ভ্রমণের উদ্দেশ্যে সকাল থেকেই রাজধানীর উত্তরা এবং আগারগাঁও স্টেশনে ভিড় করছেন সাধারণ মানুষ। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষার পর ট্রেনে উঠে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছেন সবাই। তবে ভিন্ন চিত্র স্টেশনের বাইরে। দীর্ঘ সময় লাইনে অপেক্ষা করে প্ল্যাটফর্মে প্রবেশ করতে না পারায় অনেকেই অসন্তোষ প্রকাশ করেন। ট্রেনে উঠতে আর কত সময় অপেক্ষা করতে হবে, এমন প্রশ্ন তাদের।

শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) উত্তরা দিয়াবাড়ী ও আগারগাঁও মেট্রো স্টেশন ঘুরে দেখা যায় এই চিত্র। বেলা ১১টার পরও দেখা যায় স্টেশনের বাইরে যাত্রীদের দীর্ঘ লাইন।

 

বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন আশরাফুল ইসলাম। দেশের প্রথম মেট্রোরেলের যাত্রী হতে সকাল ৯টায় লাইনে দাঁড়িয়েছেন তিনি। এরপর দুই ঘণ্টা পার হয়ে বেলা ১১টা বাজলেও মেট্রোরেলে ভ্রমণের সুযোগ পাননি আশরাফুল। এ নিয়ে কিছুটা হতাশা ব্যক্ত করেন তিনি।

আজহার আলীও জানান দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও ট্রেনে চড়তে না পারার কথা। জাগো নিউজকে তিনি বলেন, পরিবার নিয়ে সেই সকালে এসেছি। বার বার মেশিনের (ভেন্ডিং মেশিন) সমস্যার কথা জানিয়ে অপেক্ষা করতে বলছেন। ১২টায় ট্রেন বন্ধ করে দেওয়া হবে। এর মধ্যে ট্রেনে উঠতে না পারলে আজ মেট্রোরেলে না চড়েই ফিরতে হয় কি না বুঝছি না।

 

তবে দীর্ঘ সময় লাইনে অপেক্ষার পর মেট্রোরেলে ভ্রমণের টিকিট পেয়ে হাসি ফুটছে যাত্রীদের মুখে। মেট্রোরেলে চড়ে অনেকেই বলছেন, মনে হচ্ছে দেশের বাইরে আছি। শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে যুবক-বৃদ্ধ, সবার কাছেই যেন এ এক অনন্য অভিজ্ঞতা।

মেট্রোরেলে বসার পরও নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলেন না ফারিয়া ইসলাম। জাগো নিউজকে ফারিয়া বলেন, সত্যি বলতে বাংলাদেশে এমন সুন্দর ব্যবস্থা দেখতে পাবো বিশ্বাসই করতে পারছিলাম না। আমার মনে হচ্ছে উন্নত কোনো দেশে এসেছি।

বিজ্ঞাপন

এএএম/কেএসআর/এমএস jn

Leave A Reply

Your email address will not be published.