জনগণের স্বাভাবিক চলাচল হুমকির মুখে পড়েছে: ফখরুল

বিরোধী মত, মানুষের ব্যক্তি স্বাধীনতা এবং জনগণের স্বাভাবিক চলাচল চরম হুমকির মুখে পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

0 12,614

শুক্রবার (১২ আগস্ট) এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।

বিবৃতিতে লক্ষীপুর, ফেনী ও পিরোজপুরে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে আওয়ামী লীগ ও পুলিশের হামলায় নেতাকর্মীকে আহত করার অভিযোগ এনে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, রাষ্ট্র এখন সর্বগ্রাসী সন্ত্রাসী রূপ ধারণ করেছে। আওয়ামী সরকার সন্ত্রাসের ওপর অতি মাত্রায় নির্ভর করছে। বিএনপিসহ বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী ছাড়াও কোনো মানুষেরই নিরাপদে জীবনযাপন করার উপায় নেই।

মির্জা ফখরুল বলেন, মানুষের জানমালের নিরাপত্তা বিপন্ন হয়ে পড়েছে। সন্ত্রাসীদের পাশাপাশি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীও দেশকে নরকপুরীতে পরিণত করেছে। আওয়ামী লীগ দেশে নিজেদের আধিপত্য বজায় রাখতে বিরোধী লোকজনদের প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে অথবা মিথ্যা মামলায় জেলে ভরছে

তিনি বলেন, ২০১৮- এর মতো আর একটি ভোট চুরির নির্বাচন করে আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় যেতে চায়। এজন্যই বিএনপিসহ বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের ওপর দমননীতি কার্যকর করছে। এরই ধারাবাহিকতায় লক্ষীপুরে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়ে জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুনসহ ৫ জনের অধিক নেতাকর্মীকে গুরুতর আহত করা হয়। এসময় তারা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ও সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাইন উদ্দিন চৌধুরী রিয়াজের বাসায় অতর্কিতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে, লক্ষীপুর জেলা বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশের মঞ্চ, প্যান্ডেল ইত্যাদি ভাঙচুর করা হয়। এছাড়া, ফেনীতে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ সমাবেশে হামলা চালিয়ে ২০ জনের অধিক নেতাকর্মীকে গুরুতর আহত করা হয়। পিরোজপুরে শান্তিপূর্ণ সমাবেশে হামলা চালিয়ে ১৭ জন নেতাকর্মীকে গুরুতর আহত করা হয়।

তিনি আরও বলেন, সরকার নিজেদের পতন টের পেয়ে এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছে বলেই নির্যাতন-নিপীড়ন ও হামলা চালিয়ে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের মনে ভীতির সঞ্চার করে আন্দোলন-সংগ্রাম দমন করতে চায়। কিন্তু এসব অপকর্ম করে কোনো লাভ হবে না। জনগণের পিঠ এখন দেয়ালে ঠেকে গেছে। বর্তমান সরকারকে প্রতিহত করার জন্য জনগণ সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

অবিলম্বে লক্ষীপুর, ফেনী ও পিরোজপুরসহ অন্যান্য স্থানে বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব। তিনি আহত নেতাকর্মীদের সুস্থতা কামনা করেন

আলাদা বিবৃতিতে বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি লক্ষীপুরে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচিতে ছাত্রলীগ-যুবলীগের হামলা ও নেতাকর্মীদের গুরুতর আহত করার অভিযোগ এনে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার নিজেদের পতন ঠেকাতে বিরোধী দলগুলোর ওপর হামলা চালাচ্ছে। কিন্তু সরকারের পতন নিশ্চিত করতে বিএনপি নেতাকর্মীরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এখন রাস্তায় নেমে আসতে শুরু করেছে।

লক্ষীপুরে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা ও নেতাকর্মীদেরকে আহত করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান অ্যানি। সেইসঙ্গে অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান তিনি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.