২০২২ বিশ্বকাপে ভালো সম্ভাবনা দেখছেন মাহমুদউল্লাহ

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের এখনও অনেক পথ পাড়ি দেওয়ার বাকি। এই ফরম্যাটকে তাই জাতীয় দলের জন্য সবচাইতে কঠিন ফরম্যাট মানছেন টাইগারদের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তার বিশ্বাস দ্রুতই দু:সময়কে পেছনে ফেলবে বাংলাদেশ।

0 25

অস্ট্রেলিয়ার কন্ডিশন বিবেচনায় আগামী বছরের বিশ্বকাপে ভালো সম্ভাবনা দেখছেন রিয়াদ। সাম্প্রতিক ভুলগুলো নিয়ে কাজ করতে চান নতুন বছরে।

নিজেদের ঝুলিতে আছে ১২৩টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা। তবুও ক্রিকেটের শর্টার ফরম্যাটে বাংলাদেশ যেন এখনও দুধের শিশু। হারের হতাশা তো আছেই সঙ্গে বিরক্তিকর ক্রিকেট, সমর্থকদের গায়ে বাড়িয়েছে জ্বালা।

ঘরের মাঠে স্পিনিং ট্যাকে অজি-কিউই বধের সাময়িক উচ্ছ্বাসে ভেসেছিলেন সবাই। তবে মিথ্যা সে ভ্রম ভাঙ্গতে সময় লাগেনি বেশিক্ষণ। ফলাফল টানা ৮ হার। ক্যাপ্টেন রিয়াদের যেন সব অকপটে স্বীকার। বললেন এই ফরম্যাটে এখনও ছন্দ খুঁজছে বাংলাদেশ।

টিম টাইগার্সের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, ‘আমার মনে হয়, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এখনও অনেক পথ পাড়ি দেওয়ার বাকি আছে। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটটাই অনেক চ্যালেঞ্জিং। সবসময় চাপ থাকে, প্রত্যাশাও বেশি থাকে।’

প্রত্যেক হারের পর ক্রিকেটার কিংবা কর্তাদের কাছ থেকে মেলে ঘুড়ে দাঁড়ানোর আশ্বাস। তবে বাস্তবে তার প্রতিফলন পাওয়া যায় না খুব একটা। সমালোচনাকে ইতিবাচক হিসেবে নিয়ে রিয়াদ এগোতে চান সম্মুখপানে।

বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘অতীতে যা হয়ে গেছে, সেটি নিয়ে অবশ্যই চিন্তা থাকতে হবে। কারণ আগামীতেও এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে। আর তখন যাতে ভুলগুলো শুধরে নিয়ে ভালোভাবে পারফর্ম করতে পারি।’

তবে সেখানে হাতে সময় নেই খুব একটা। কারণ আসছে বছরের ১৬ অক্টোবর থেকে ১৩ নভেম্বর তাসমান সাগর পাড়ের দেশ অস্ট্রেলিয়াতে বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ৮ম আসর। অজি কন্ডিশনের বিবেচনায় সেখানে বাংলাদেশের ভালোই সম্ভাবনা দেখছেন তিনি।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি অস্ট্রেলিয়ার মতো কন্ডিশনে ভালো করার সুযোগ থাকবে।

সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া ভুলের আর ব্যবচ্ছেদ না করে নতুন বছরে নতুন শুরুর প্রত্যাশা রিয়াদের কণ্ঠে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.