দেশের জীববৈচিত্র্য ধ্বংসের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সংসদীয় কমিটি

0 17,064

বন্যপ্রাণী পাচাররোধে বিদ্যমান আইনের যথাযথ প্রয়োগ নিশ্চিত না হওয়ায় এ উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। এছাড়া বন্যপ্রাণী পাচাররোধে ট্রানজিট ব্যবস্থার অবসান ঘটাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য মন্ত্রণালয়কে কমিটির পক্ষ থেকে প্রচলিত আইনের আওতায় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা জোরদার করার প্রতি সতর্ক থাকার সুপারিশ করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৩১তম বৈঠকে এ উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন, উপ-মন্ত্রী হাবিবুন নাহার, তানভীর শাকিল জয়, জাফর আলম এবং খোদেজা নাসরিন আক্তার বৈঠকে অংশ নেন।

বৈঠকে বন্যপ্রাণী পাচার, কক্সবাজারে অবৈধ বালু উত্তোলন, সেন্টমার্টিনে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা বিভিন্ন হোটেল, মোটেল, রিসোর্ট এবং আসন্ন কপ-২৭ সম্মেলনের প্রস্তুতি, সাইড ইভেন্ট এবং অংশগ্রহণে ইচ্ছুক সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

কক্সবাজারে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ করা, বিশেষ করে সংরক্ষিত বনাঞ্চল রক্ষায় বালু উত্তোলন বন্ধে আরও কঠোর হওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার সহায়তা কামনা করা হয়। এছাড়া সেন্টমার্টিনে নিয়ম বহির্ভূতভাবে গড়ে ওঠা বিভিন্ন হোটেল, মোটেল, রিসোর্ট ইত্যাদি পরিবেশ দূষণকারী প্রতিষ্ঠানকে সতর্কতা অবলম্বনের জন্য নোটিশ দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বৈঠকে আসন্ন কপ-২৭ সম্মেলনে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সৃষ্ট ঝুঁকি এবং এর ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের বাস্তবায়িত কার্যক্রমগুলো ওই প্যাভিলিয়নে প্রদর্শন ও প্রচারের বিষয়ে বিভিন্ন সাইড ইভেন্ট আয়োজনের প্রতি গুরুত্বারোপ করা হয়।

এসময় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিভিন্ন দপ্তর ও সংস্থা প্রধানরাসহ মন্ত্রণালয় এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এইচএস/এমএএইচ/জেআইএম

Leave A Reply

Your email address will not be published.