বার্সাকে হারিয়ে সুপার কোপার ফাইনালে রিয়াল

স্প্যানিশ সুপার কাপে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনাকে ৩-২ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠল রিয়াল মাদ্রিদ। বুধবার (১২ জানুয়ারি) রাতে ম্যাচের নির্ধারিত সময়ে ফলাফল ২-২ গোলে ড্র ছিল। অতিরিক্ত সময়ের প্রথমার্ধে ভালভার্দের গোলে একই সাথে মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো জিতল মাদ্রিদিস্তানরা। এই জয়ে স্প্যানিশ সুপার কাপের দ্বাদশ শিরোপা জয় থেকে মাত্র এক ধাপ দূরে কার্লো আনচেলত্তির দল।

0 10,251

মেসি-রোনালদোরা নেই, তাতে কি! এল ক্লাসিকোর উন্মাদনা যে ঐতিহাসিক। স্থান, কাল, পাত্রের উপর নির্ভর করতে হয় না। যদি হয় মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো। তাও আবার স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে ওঠার ম্যাচ। দম বন্ধ করা এমন ম্যাচের একটি মুহূর্তও কেউ মিস করতে চাইবেন না।

ধারে ভারে এই রিয়াল মাদ্রিদের কাছাকাছিও নেই বার্সেলোনা। দুই দলের সবশেষ চার লড়াইয়ে সবকটিতে বিজয়ী দলের নাম রিয়াল। বার্সেলোনা যে মিথ তা অবশ্য প্রমাণ করতে মরিয়া মাদ্রিদিস্তানরা এগিয়ে যায় ম্যাচে যায় ম্যাচে ২৫ মিনিটেই। সৌদি আরবের বাদশা ফাহাদ স্টেডিয়ামে স্কোর করে রিয়ালকে এগিয়ে দেন ভিনিসিাস জুনিয়র।

তবে মর্যাদায় আঘাত লাগলে নাকি হুঁশ আসে। বার্সারও আসলো। প্রথমার্ধেই রিয়ালকে বোকা বানিয়ে বার্সাকে সমতায় ফেরাল লুক ডি ইয়ং। বোঝা গেল জমে উঠছে ধ্রুপদি লড়াই।

বিরতি থেকে ফিরে শুরু হয় এগিয়ে যায় খেলা। জাভি-আনচেলত্তি দু’জনেই ফাতিহ-বেনজেমাদের নিয়ে অল আউট ফুটবলের আক্রমণের পসরা সাজাল। আর তা বুঁদ হয়ে দেখল বিশ্ব। অপেক্ষাকৃত শক্তিশালি রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে বুক চিতিয়ে লড়ে গেল বার্সা। তবে অভিজ্ঞতার কাছে পারল না। বেনজেমার বুট জোড়ায় ভর করে ব্যাবধান ২-১ করে রিয়াল।

ম্যাচের তখনও বাকি ১৮ মিনিট। মাথা নত করা যাবে না কোনো মতেই। এ যে মর্যাদার লড়াই! ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের বাকি তখন ৭ মিনিট। সবাই ধরেই নিয়েছিল এল ক্লাসিকোতে টানা পঞ্চম হারের স্বাদ পেতে যাচ্ছে বার্সা। কিন্তু অন্তিম সময়ে গোল করে বার্সাকে আবারও সমতায় ফেরান মেসির জার্সি নম্বর গায়ে জড়ানো আনসু ফাতি। যেনো মেসির মতোই ত্রাণকর্তা রূপে বাঁচালেন গ্রহের অন্যতম জনপ্রিয় ক্লাবকে। ম্যাচ গড়ায় এক্সট্রা টাইমে।

তবে লম্বা ম্যাচের টেম্পারমেন্ট ধরে রাখতে পারলো না বার্সা। লা লিগার শীর্ষ দলের সঙ্গে ভুল করলে তার মাসুল দিতেই হবে। দিতেও হলো বার্সেলোনার। এক্সট্রা টাইমের ৮ মিনিটে রদ্রিগোর পাস ভালভার্দের দারুণ এক গোলে ম্যাচে তৃতীয় বারের লিড নেয় রিয়াল।

স্নায়ুর চাপের ম্যাচে বাকি সময় আর সেই গোল পরিশোধ করতে পারল না বার্সা। আর তাতে স্প্যানিশ সুপার কাপের ১২ তম শিরোপার আরও কাছে রিয়াল মাদ্রিদ।

আগামী রোববার (১৬ জানুয়ারি) জেদ্দার কিং আব্দুল্লাহ স্পোর্টস সিটি স্টেডিয়ামে ফাইনালে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ অথবা অ্যাথলেটিক বিলবাও’র মুখোমুখি হবে রিয়াল।

Leave A Reply

Your email address will not be published.