শিক্ষার্থীদের অবরোধ প্রত্যাহার, রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

রাজধানীর বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশনে কর্তৃপক্ষের অনুরোধে শিক্ষার্থীরা অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়ায় সারা দেশের সঙ্গে রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়েছে।

0 8,941

চার ঘণ্টা পর রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়। বুধবার (২০ জুলাই) সকালে টিকিট না পেয়ে রাজধানীর বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশনে শিক্ষার্থীরা ভাঙচুর ও রেললাইন অবরোধ করায় ঢাকার সঙ্গে সারা দেশের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

পরে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে কর্তৃপক্ষ জানায়, ঢাকা থেকে সিল্ক সিটি এক্সপ্রেস ট্রেনের সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করে টিকিটের ব্যবস্থা করা হবে।

সকাল থেকে রাজধানীর বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশনে নীলফামারীগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটিকে আটকে রাখেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীসহ অন্যান্য যাত্রী।

বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা (ঢাকা বিভাগ) খায়রুল কবির জানান, সকাল ৮টা ৫৫ মিনিট থেকে ট্রেনটিকে আটকে রাখা হয়।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীসহ যাত্রীরা বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশনে রেললাইন অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। ফলে নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি আটকে পড়ে। এ কারণে নারায়ণগঞ্জ ছাড়া ঢাকা থেকে দেশের কোথাও কোনো ট্রেন যেতে পারছিল না। তবে সারা দেশ থেকে ঢাকায় ট্রেন এসেছে। পরে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে কথা বলার পর অবরোধ প্রত্যাহার করায় রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়।

ঢাকা রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল হক বলেন, বুধবার সকাল থেকে বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রীরা বিক্ষোভ করেন। এতে ট্রেন চলাচল বিঘ্নিত হয়।

তিনি আরও বলেন, ‘রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার্থীরা টিকিটের জন্য বিমানবন্দর স্টেশনে গিয়েছিলেন। তাদের অভিযোগ, স্টেশনে যাত্রী ছিল বেশি, টিকিট ছিল কম। যাত্রীদের কাছ থেকে পাওয়া টিকিট কালোবাজারির অভিযোগ আমরা খতিয়ে দেখব।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.