সাবমেরিন থেকে নিক্ষেপ করা যায় এমন নতুন ধরনের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের প্রদর্শনী করেছে উত্তর কোরিয়া। দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম নতুন এ ক্ষেপণাস্ত্রকে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র বলেও অভিহিত করেছে। বৃহস্পতিবার পিয়ংইয়ংয়ের কিম ইল সুং চত্বরে হওয়া কুচকাওয়াজে নতুন ধরনের এ ক্ষেপণাস্ত্রের কয়েকটি দেখানো হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি। যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের অভিষেকের কয়েকদিন আগে উত্তর কোরিয়া কুচকাওয়াজের মাধ্যমে তাদের সামরিক শক্তির এ প্রদর্শনী করল।
কয়েকদিন আগে উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন দল ওয়ার্কার্স পার্টির কংগ্রেসে কিম যুক্তরাষ্ট্রকে তার দেশের সবচেয়ে বড় শত্রু হিসেবে অভিহিত করেছিলেন।
এদিনের কুচকাওয়াজে পিয়ংইয়ং তাদের সর্ববৃহৎ আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হাজির করেনি; অক্টোবরে হওয়া তুলনামূলক বড় কুচকাওয়াজে ওই ক্ষেপণাস্ত্রটির প্রদর্শনী হয়েছিল। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএনএ-র ছবিতে বৃহস্পতিবারের কুচকাওয়াজে সাবমেরিন থেকে নিক্ষেপ করা যায় এমন ৪টি ক্ষেপণাস্ত্র দেখানো হয়। এই ক্ষেপণাস্ত্রগুলো আগে কখনো দেখানো হয়নি বলে নিশ্চিত করেছেন সামরিক বিশ্লেষকরা। নতুন বছর, নতুন পুকগুকসং, সাবমেরিন থেকে নিক্ষেপযোগ্য ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রগুলোকে যে নামে ডাকা হচ্ছে, তা উল্লেখ করে এক টুইটে এমনটাই বলেছেন উত্তর কোরিয়া বিশেষজ্ঞ অঙ্কিত পান্ডা। কুচকাওয়াজ দেখার সময় চামড়ার কোট ও পশমের হ্যাট পরা কিমের হাস্যোজ্জ্বল ও হাত নাড়ার ছবিও দিয়েছে কেসিএনএ। গত সপ্তাহে ওয়ার্কার্স পার্টির কংগ্রেসে কিম উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক অস্ত্রভাণ্ডার সমৃদ্ধ এবং সামরিক বাহিনীর শক্তি আরও বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here