সাতকানিয়ায় ওভারটেক করতে গিয়ে যাত্রীবাহী বাস ডোবায় পড়ে একজন নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম মো. মনির উদ্দিন (৩০)। তিনি ওই বাসের হেলপার বলে জানা গেছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার কেউছিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের পশ্চিম পাশে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানান, দুপুরে চট্টগ্রামমুখী শ্যামলী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস কেরানীহাট অতিক্রম করছিল। এ সময় অপর একটি যাত্রীবাহী বাসকে ওভারটেক করতে যায় গাড়িটি। কিন্তু হঠাৎ একটি ব্যাটারিচালিত রিকশা এসে পড়লে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। পরে বাসটি সড়কের পাশে ডোবায় পড়ে যায়। এ ঘটনায় বাসের ৩০ জন যাত্রী কম-বেশি আহত হয়েছেন। দুর্ঘটনার পরপর হাইওয়ে থানার পুলিশ ও দমকল বাহিনীর কর্মীরা গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে কেরানীহাটের বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠায়। উদ্ধারকাজে অংশ নেয়া স্থানীয়রা জানান, বাসে কয়েকজন শিশু ছিল। পরে দুপুর দেড়টার দিকে হাইওয়ে থানা পুলিশ তিনটি রেকারের সাহায্যে ডোবা থেকে দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি উদ্ধার করে। সাতকানিয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কার্যালয়ের স্টেশন কর্মকর্তা মো. জুলহাস উদ্দিন বলেন, বাসটি তুলে আনার পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ওই ডোবায় খোঁজাখুঁজি শুরু করে। একপর্যায়ে কাদায় আটকে থাকা মনিরের লাশ পাওয়া যায়। নিহত মনির চকরিয়া উপজেলার হারবাং এলাকার মো. আবু বক্করের পুত্র।
দোহাজারী হাইওয়ে থানা-পুলিশের এএসআই আদম আলী বলেন, দুর্ঘটনার পরপর বাসটির চালক পালিয়ে যায়। বাসটি জব্দ করা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মনিরের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here