ছপাক ছবির উদ্বোধনী প্রদর্শনী হওয়ার পরে প্রশংসায় ভাসছেন দীপিকা পাড়ুকোন। কেবল দর্শকের নয়, এই অভিনেত্রী সহশিল্পীদেরও প্রশংসা পাচ্ছেন। বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রনৌত প্রশংসা করলেন দীপিকা ও ছবির পরিচালক মেঘনা গুলজারের। শুধু তা-ই নয়, ছপাক ছবির পুরো দলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী। কঙ্গনার ভাষায়, ছবিটি অ্যাসিড–সন্ত্রাসীদের গালে কষে থাপ্পড় মেরেছে। কঙ্গনার বোন রাঙ্গোলি চন্ডালও টুইটারে ছবিটির প্রতি অকুণ্ঠ ভালোবাসার কথা জানিয়েছেন।

কঙ্গনার একটি ভিডিও মেসেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন রাঙ্গোলি। ভিডিওর ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘ব্যথা এখনো দীর্ঘায়িত হচ্ছে। আমাদের পরিবারের পক্ষ থেকে ছপাক দলকে ধন্যবাদ জনাই। এই গল্পটি বলার খুব প্রয়োজন ছিল।’

কঙ্গনা ভিডিওতে জানান, ছপাক ছবির ট্রেলার দেখার সময়ে তাঁর মনে পড়েছিল, কীভাবে তাঁর বোন রাঙ্গোলি অ্যাসিড–সন্ত্রাসের শিকার হয়ে বেঁচে থাকার সংগ্রাম করেছিলেন। কঙ্গনা বলেন, ‘আমি এবং আমার পুরো পরিবার এমন একটি বিষয় নিয়ে ছবি বানানোর জন্য দীপিকা পাড়ুকোন ও ছবির পরিচালক মেঘনা গুলজারকে ধন্যবাদ জানাই। এ রকম উদ্যোগের মাধ্যমে অ্যাসিড–আক্রান্তরা শক্তি পাবে। ছপাক ওই সব অপরাধীর গালে কষে থাপ্পড় লাগিয়েছে। অপরাধীরা আক্রান্তদের চেহারাগুলোকে ধ্বংস করে দিতে চেয়েছিল, কিন্তু এই ছবি প্রমাণ করেছে, তাদের চেহারা দিন দিন আরও উজ্জ্বল হয়েছে। আমি আশা করি, নতুন বছরে বাজারে খোলামেলাভাবে অ্যাসিড বিক্রি বন্ধ হবে। আমরা অ্যাসিড আক্রমণ থেকে বাঁচব। আমি ছপাক দলের সবার জন্য শুভকামনা জানাই।’
সূত্র: দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস