ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতে নিয়েছে ভারত। গতকাল পুনেতে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৭৮ রানের জয়ে সিরিজ জয়ের পাশাপাশি রেকর্ড বইয়ের একটি পাতায়ও নিজের নাম লিখিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। অধিনায়ক হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দ্রুততম এগারো হাজার রান করার রেকর্ডটি এখন তাঁর।

এগারো হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করতে ভারতীয় অধিনায়কের দরকার ছিল মাত্র এক রান। শ্রীলঙ্কান বোলার লাকশান সান্দকানের বলে এক রান নিয়েই সে মাইলফলক স্পর্শ করেন কোহলি। টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি—তিন সংস্করণ মিলিয়ে মাত্র ১৯৬ ইনিংস খেলেই এই রেকর্ড গড়লেন কোহলি। এ দিন অবশ্য খুব বড় ইনিংস খেলতে পারেননি ভারতীয় অধিনায়ক, রান আউট হয়ে যাওয়ার আগে ১৭ বলে করেছেন ২৬ রান। লোকেশ রাহুল (৫৪) ও শিখর ধাওয়ানের (৫২) ফিফটিতে প্রথমে ব্যাট করে ভারত তোলে ৬ উইকেটে করে ২০১ রান। যা তাড়া করতে এসে ১২৩ রানেই অলআউট হয়েছে শ্রীলঙ্কা। ৭৮ রানের অনায়াস জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ভারত।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অধিনায়কদের এগারো হাজারি ক্লাবটি খুব বড় নয়। সদস্য মাত্র ছয়জন। সর্বশেষ সদস্য কোহলি ছাড়া আগের পাঁচ সদস্য হলেন অস্ট্রেলিয়ার অ্যালান বোর্ডার (১১০৬২) ও রিকি পন্টিং (১৫৪৪০), দক্ষিণ আফ্রিকার গ্রায়েম স্মিথ (১৪৮৭৮), নিউজিল্যান্ডের স্টিভেন ফ্লেমিং (১১৫৬১), ভারতের মহেন্দ্র সিং ধোনি (১১২০৭)। গতকালের ২৬ রানের ইনিংসটি ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোহলির রান ১১০২৫।

অধিনায়ক হিসেবে এগারো হাজার রান করতে পন্টিংয়ের লেগেছিল ২৫২ ইনিংস। দক্ষিণ আফ্রিকা বোর্ডের বর্তমান পরিচালক ও সাবেক অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিথের লেগেছিল ২৬৪ ইনিংস। বোর্ডার আর ধোনি এই মাইলফলক স্পর্শ করেছিলেন যথাক্রমে ৩১৬ ও ৩২৪ ইনিংসে।

কোহলি যে ব্যাটসম্যান হিসেবে কতটা ‘স্পেশাল’, এই রেকর্ডটা যেন তারই আরেকটা প্রমাণ।