কাতার বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) ভোর সাড়ে পাঁচটায় পেরুর মুখোমুখি হবে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। তার আগে সংবাদ সম্মলনে বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি জানিয়েছেন কারা কারা খেলতে পারেন এ ম্যাচে।

১১ অক্টোবর উরুগুয়েকে ৩-০ গোলে হারানোর ম্যাচে আর্জেন্টিনার আক্রমণভাগে লিওনেল মেসির সঙ্গী ছিলেন লাওতারো মার্তিনেজ, লো সেলসো ও নিকোলাস গঞ্জালেস। অনেকটা এরকম আক্রমণভাগই সাজাবেন আলবিসেলেস্তে কোচ। এ সম্পর্কে সংবাদ সম্মেলনে স্কালোনি বলেন, ‘আমি একেবারে নিশ্চিত না যে কারা খেলবে। তবে এটা বলতে পারি যে গত ম্যাচে যারা খেলেছে তারাই একাদশে থাকবে পেরুর বিপক্ষে। দুয়েকটা পরিবর্তন আসলেও আসতে পারে। এটা খুব ভালো একটা ম্যাচ হবে।’

কোপা আমেরিকার শিরোপা জয়ের রঙিন মুহূর্তের ছবি চোখে পড়বে বুয়েন্স আয়ার্সে আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের প্র্যাকটিস গ্রাউন্ডে। মারাকানা থেকে জয় করে আনা রুপালি ট্রফিটাই যেন আলবিসেলেস্তেদের বর্তমান প্রজন্মের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে প্রীতি ম্যাচের আগেই তাই আলোচনায় কোপার বীরত্বগাঁথা।

বাছাইয়ের সবশেষ ম্যাচেও বীরের মতোই জিতেছে আর্জেন্টাইনরা। সুয়ারেজের উরুগুয়েকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে মেসি দল। পেরুর বিপক্ষে ম্যাচের আগে অনুশীলনে তাই চনমনে থাকাই স্বাভাবিক। ডি মারিয়া-রদ্রিগো ডি পলদের সঙ্গে প্র্যাকটিস সেশনে লিওনেল মেসির হাস্যোজ্জ্বল চেহারাটা ম্যাচেও দেখতে চাইবেন সমর্থকরা। দেখতে চাইবেন কোচও। এসব নিয়ে আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি বলেন, ‌’‌দলটার মধ্যে বোঝাপড়া খুব ভালো, যা মেসিকে আরও ভালো খেলতে সহায়তা করে। সতীর্থদের সঙ্গে ও খুবই স্বাচ্ছন্দ্যে খেলতে পারে। দল হিসেবে ভালো না করলে তার পারফরম্যান্সেও প্রভাব পড়ত।‌’

স্কালোনি আরও বলেন, ‌‌’পেরুর খেলোয়াড়রা কৌশলী। ওরাও বল দখলে রেখে খেলে। এই দলটা অনেক দিন একসঙ্গে খেলছে। ওদের মিডফিল্ড বেশ শক্তিশালী। ওরা রক্ষণাত্মক ঢঙে খেলে না। প্রতিপক্ষকে চাপে রাখার চেষ্টা করে।‌’ ঘরের মাঠে খেলা বিধায় দর্শকরাও উন্মুখ হয়ে আছেন প্রিয় দলের খেলা উপভোগ করতে।

আর্জেন্টিনার সম্ভাব্য একাদশ

এমিলিয়ানো মার্তিনেজ, মন্তিয়েল, রোমেরো, নিকোলাস ওতামেন্দি, তাগলিয়াফিকো, ডি মারিয়া, লিয়ান্দ্রো প্যারাদেস, নিকোলাস গঞ্জালেস, লিওনেল মেসি ও মার্তিনেজ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here