করোনা মহামারীর মধ্যে প্রায় দেড় বছর পর পর্যটকদের জন্য দুয়ার খুলতে যাচ্ছে ভারত। ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশন জানিয়েছে, আগামী ১৫ নভেম্বরের পর নির্ধারিত এয়ার বাবল ফ্লাইটে পর্যটক ভিসায় বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাওয়া যাবে। অবশ্য কেউ চার্টার্ড ফ্লাইট নিয়ে পর্যটন ভিসায় ভারতে যেতে চাইলে ১৫ অক্টোবরের পরই সে সুযোগ মিলবে। আগামী মঙ্গলবার থেকেই বাংলাদেশে পর্যটক ভিসা পরিষেবা শুরু করতে যাচ্ছে ভারতীয় হাই কমিশন।

শুধু বাংলাদেশ নয়, সব দেশের নাগরিকরাই ১৫ নভেম্বরের পর পর্যটক ভিসায় ভারতে প্রেবেশের সুযোগ পাবেন বলে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার জানিয়েছে।

মহামারী শুরুর পর গত বছর বিদেশিদের সব ধরনে ভিসা দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছিল ভারত। সংক্রমণ কমে আসার পর ব্যবসা, চিকিৎসাসহ অন্যান্য প্রয়োজনে ভারতে যাওয়ার সুযোগ দেওয়া হলেও পর্যটকদের জন্য সীমান্ত বন্ধই রেখেছিল দেশটির সরকার।

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণের লকডাউনের মধ্যে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর বাংলাদেশে ভারতের ভিসা আবেদন কেন্দ্রগুলো ১১ অগাস্ট থেকে খুলে দেওয়া হয়। এসব কেন্দ্রে ভিসার আবেদন জমা দিতে কোনো ধরনের অ্যাপয়েন্টমেন্টের প্রয়োজন হচ্ছে না।

ভারতের কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুযায়ী, ২০১৯ সালে এক কোটি ৯ লাখ ৩০ হাজার ৩৫৫ বিদেশি ভারতে ভ্রমণ করেছেন। তার মধ্যে শীর্ষে থাকা বাংলাদেশির সংখ্যা ছিল ২৫ লাখ ৭৭ হাজার ৭২৭ জন।

তাদের মধ্যে ৭৭ শতাংশ গেছেন বেড়াতে এবং ১৫ দশমিক ৪০ ভাগ গেছেন চিকিৎসার উদ্দেশ্যে। ওই বছর বাংলাদেশিদের জন্য মোট ১৫ লাখ ভিসা দিয়েছিল প্রতিবেশী দেশটি।

গত বছর চিকিৎসার জন্য ভারতে যাওয়া বিদেশিদের ৫৪ শতাংশই ছিল বাংলাদেশ থেকে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ইরাক থেকে এই সংখ্যা ছিল ৯ শতাংশ এবং তৃতীয় অবস্থানের আফগানিস্তান থেকে ৮ শতাংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here