প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পরও বিমানবন্দরে আরটিপিসিআর ল্যাব বসাতে আশার কথা শোনাতে পারলেন না স্বাস্থ্য ও প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দুই মন্ত্রী। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পিসিআর ল্যাব বসানোর কার্যক্রম পরিদর্শন করেন তারা। এ সময় দুই মন্ত্রী জানান, আরটিপিসিআর ল্যাব বসাতে সময় লাগবে আরও অন্তত এক সপ্তাহ। এতে ক্ষোভ জানিয়েছেন প্রবাসীরা।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পর পেরিয়ে গেছে ১৫ দিন। বিমানবন্দরে প্রবাসীদের কোভিড পরীক্ষার ল্যাব বসানোর জন্য নির্ধারিত স্থানে এখনো নেই কোনো তোড়জোড়।


এমন অবস্থার মধ্যেই পিসিআর ল্যাব স্থাপন বিষয়ে সকালে বিমানবন্দরে যান স্বাস্থ্যমন্ত্রী, প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মূখ্যসচিব, সিভিল এভিয়েশন চেয়ারম্যানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। তবে ঘণ্টাখানেক বৈঠকের পর সরকারের দুই মন্ত্রী জানালেন, নির্ধারিত স্থানে ল্যাব বসানোর অবকাঠামো তৈরিতে লাগবে আরও কিছু দিন সময়। তাই আপাতত বিমানবন্দরের ভেতরেই বসানো হবে ল্যাব। তবে সে কাজও কবে নাগাদ শুরু হবে, সে বিষয়ে নির্দিষ্ট করে কিছুই বলতে পারলেন না দুই মন্ত্রী।

প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমেদ বলেন, ছাদে ল্যাব তৈরি করতে সময় ৭-১০ দিন লাগবে। ভেতরে কিন্তু আমাদের জায়গায় রেডি। যদি তাদের কথায় ঠিক থাকে তাহলে আশা করি এ সপ্তাহের মধ্যে ল্যাব তৈরি হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, যাদেরকে কাজ দেওয়া হয়েছে। তারা ছোট আকারে বিমানবন্দরের ভেতরে ল্যাব তৈরি করবেন। যেখানে তারা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব কাজ শুরু করে দেবে।

এদিকে, আরব আমিরাত বিমানবন্দরে র‍্যাপিড পিসিআরে কোভিড পরীক্ষার শর্ত দিলেও আপাতত আরটিপিসিআরেই হতে যাচ্ছে পরীক্ষা।

গত মাসে বিমানে চড়ার ৬ ঘণ্টা আগে প্রবাসী শ্রমিকদের কোভিড-১৯ পরীক্ষায় নেগেটিভ সনদের শর্ত দেয় সংযুক্ত আরব আমিরাত। যে কারণে বিমানবন্দরে ল্যাব না থাকায় অনিশ্চয়তায় পড়ে যায় প্রবাসীদের কর্মস্থলে ফেরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here