নারীদের বাদ দিয়ে জাতিসংঘের কালো তালিকাভুক্ত ও মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইয়ের মোস্ট ওয়ান্টেড ব্যক্তিদের নেতৃত্বে আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করায় উদ্বেগ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

এদিকে নতুন আফগানিস্তান নিয়ে চীন, পাকিস্তান, রাশিয়া ও ইরানের হস্তক্ষেপের বিষয়টি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার তিন সপ্তাহ পর নতুন ইসলামি আমিরাত অব আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করল তালেবান। শুরু থেকেই নেতৃত্বে মোল্লাহ আব্দুল গনি বারাদারের নাম আসলেও অন্তর্বর্তী সরকারের ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মোল্লাহ হাসান আকুন্দকে।

বারাদার ও আব্দুল সালাম হানাফি হয়েছেন ভারপ্রাপ্ত উপপ্রধানমন্ত্রী। গুরুত্বপূর্ণ প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন তালেবানের সহপ্রতিষ্ঠাতা মোল্লাহ মোহাম্মদ ওমরের ছেলে মোল্লাহ মোহাম্মদ ইয়াকুব।

হাক্কানি নেটওয়ার্কের প্রতিষ্ঠাতার ছেলে সারাজউদ্দিন হাক্কানি পেয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব। সবগুলো পদ ভারপ্রাপ্ত বলে অন্তর্বর্তী সরকার এখনো চূড়ান্ত নয় উল্লেখ করে তালেবান মুখপাত্র জানান, শিগগিরই বাকি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্তদের নামও ঘোষণা করা হবে।

মঙ্গলবার অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের পরপরই মন্ত্রীদের ইসলামিক আইন বা শরীয়া আইন বাস্তবায়নের নির্দেশ দেন তালেবানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা মাওলায়ি হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা। দেশের স্বার্থ ও ইসলামিক আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক নয় এমন আন্তর্জাতিক আইন ও চুক্তি মেনে চলারও কথা জানিয়ে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহযোগিতা কামনা করেছে তালেবান।

এদিকে, আফগানিস্তানের নতুন সরকার গঠন গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র। বিশেষ করে নারীদের বাদ রেখে সরকার গঠন জাতিসংঘের কালো তালিকাভুক্ত ও মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইয়ের মোস্ট ওয়ান্টেড তালিকায় থাকা ব্যক্তিদের নাম সরকারে আসায় গভীর উদ্বেগ জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর।

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন ও ন্যাটো সেনা প্রত্যাহারের পর দেশটিতে দিন দিন আধিপত্য বাড়ছে পাকিস্তান, চীন, রাশিয়া ও ইরানের। ভৌগলিক ও আন্তর্জাতিক রাজনীতির কারণে দেশগুলোর আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে আফগানিস্তান।

তবে পরিবর্তিত আফগানিস্তানে পাকিস্তান, চীন, রাশিয়া ও ইরানের বাড়তি আগ্রহের বিষয়টি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। দেশগুলোর নেওয়া পদক্ষেপ অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

তালেবান সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছে জাপানও। একইসঙ্গে আফগান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলেও জানায় দেশটি। তালেবান সরকারকে সহযোগিতার ঘোষণা দিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ানও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here