ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো নাকি য়্যুভেন্তাস ছাড়ছেন। সম্প্রতি এমন গুঞ্জনে সয়লাব হয়ে গিয়েছিল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। এমন গুঞ্জনে ব্যাপক খেপেছেন পর্তুগিজ সুপারস্টার। ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এর জবাবও দিয়েছেন তারকা ফুটবলার। এবার নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানালেন তুরিনের ক্লাবটির কোচ মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রিকে।

য়্যুভেন্তাসের সঙ্গে চুক্তি থাকা অবস্থাতেই রোনালদোকে কেউ পাঠিয়ে দিচ্ছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে, কেউ পাঠিয়ে দিচ্ছেন রিয়াল মাদ্রিদ কিংবা পিএসজিতে! তবে পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকা তুরিনেই থাকছেন।

য়্যুভেন্তাসে রোনালদোর চুক্তির আর বাকি আছে এক বছর। কিন্তু এ মৌসুমে তুরিনের ক্লাবে দল বদলের গুঞ্জন উড়িয়ে য়্যুভেন্তাসেই থাকছেন তিনি। কোচ মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রিকে এমনটাই বলেছেন রোনালদো।
গত সপ্তাহে একটি প্রীতি ম্যাচে খেলেননি ৩৬ বছর বয়সী রোনালদো। এ বিষয়ে সংবাদমাধ্যমকে আলেগ্রি বলেন, বৃহস্পতিবারের (১৯ আগস্ট) ওই খেলায় আমরা প্রশিক্ষণের কাজে প্রচণ্ড চাপে ছিলাম। এ কারণে রোনালদোকে অর্ধদিন ছুটি দিয়েছিলাম।
তিনি বলেন, রোনালদো আমাদের জন্য একটি বোনাস। কারণ তিনি প্রচুর সংখ্যক গোলের নিশ্চয়তা দেন। স্পষ্টতই, একজন ব্যক্তির সেরাটা পেতে আমাদেরও দল হিসেবে কাজ করতে হবে। সিআর সেভেন সবসময় ভালো প্রশিক্ষণ নিয়ে থাকেন। আমি শুধু কাগজে গুঞ্জন পড়েছি। তিনি আমাদের কখনও বলেননি যে তিনি চলে যেতে চান।
কোচ বলেন, রোনালদো আমাকে বলেছেন তিনি য়্যুভেন্তাসেই থাকছেন।
রোববার (২২ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১০টায় উদিনেসের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে তুরিনের বুড়িদের নতুন মৌসুম শুরু হবে। এতে ২০২১-২২ মৌসুমে যে সিআর সেভেন আলেগ্রির পরিকল্পনার অংশ হতে যাচ্ছেন, সেটা আর বলার বাকি রাখে না।
পর্তুগিজ তারকাকে ঘিরে দলবদলের বাজারে সবচেয়ে বেশি জল ঘোলা হয়েছে পিএসজিকে কেন্দ্র করে। কিলিয়ান এমবাপ্পে হঠাৎ প্যারিস ছাড়ার আগ্রহ প্রকাশ করলে তার জায়গায় রোনালদোকে বসিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে ইউরোপের সংবাদমাধ্যমগুলো। যদিও কিলিয়ানের বিষয়টি এখনও নিশ্চিত নয়। তবে য়ুভেন্তাসের সঙ্গে রোনালদোর চুক্তি শেষ হবে এ মৌসুমেই। তার পরবর্তী ঠিকানা নিয়ে এখনই হিসাব মেলানো ঠিক হবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here