ছোটপর্দার অভিনেতা নিলয় আলমগীর দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন। সম্প্রতি নিজের ফেসবুকে বিয়ের কিছু ছবি আপলোড করে খবরটি জানান অভিনেতা নিজেই। এরপর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আক্রমণের মুখে পড়েন নিলয়।

হতাশ অভিনেতা শনিবার (১৪ আগস্ট) নিজের ফেসবুক পেজে নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। তবে এই পরিস্থিতিতে তার পাশে দাঁড়িয়েছেন জনপ্রিয় গায়ক ও অভিনেতা তাহসান।

দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে ট্রোলিংয়ের মুখে ক্ষোভ উগরে দিয়ে নিলয় লেখেন, ‘কি যে একটা সমস্যায় আছি। বিয়ে করেছি, ২য় বিয়ে। হালাল সম্পর্ক, বৈধ সম্পর্ক। চুরি, ডাকাতি, খুন, ধর্ষণ তো আর করিনি।  নতুন বউ- এর সঙ্গে হাসি খুশি ছবি দিলে কমেন্ট করতেসে এত নির্লজ্জ কেন আপনি, ২য় বিয়ে করেছেন আবার বউয়ের সঙ্গে ছবি দেন! একা ছবি দিলাম তাতেও সমস্যা বিয়ের পর একা ছবি কেন। আমার বিড়ালের সঙ্গে ছবি দিলাম সেটাও সমস্যা।
এক হাজারের উপরে ছবি তুলেছি। গালি খাওয়ার ভয়ে পোস্ট করতে পারছি না। আমার এত ছবি নিয়ে আমি এখন কোথায় যাবো! ’
নিলয়ের এই পোস্ট নিজের ফেসবুকে শেয়ার দিয়ে তাকে সমর্থন দেন তাহসান। ট্রোলারদের বিরুদ্ধে লেখেন, ‘প্রতিদিন কাউকে না কাউকে হেয় প্রতিপন্ন করার তাগিদটা কি খুব জরুরি? এটা কি খ্যাতির বিড়ম্বনা নাকি একটা সামাজিক ব্যাধি?’ তাহসান লেখেন, ‘নিলয়ের জন্য আমার খারাপ লাগছে’।
গেল ৭ জুলাই পারিবারিকভাবে বিয়ে করেছেন নিলয়। তার উত্তরার বাসায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন। দেশীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে এমনটাই জানান এ অভিনেতা।

নিলয় জানান, তার স্ত্রীর নাম তাসনুভা তাবাসসুম হৃদি। তিনি গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের শিক্ষার্থী। বিয়েতে দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠজন এবং বন্ধুরা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে ২০১৬ সালে মডেল ও অভিনেত্রী আনিকা কবীর শখকে বিয়ে করেছিলেন নিলয়। ২০১৬ সালে শখের পুরান ঢাকার বাড়িতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সেরেছিলেন তারা। বনিবনা না হওয়ায় ২০১৭ সালে বিচ্ছেদের পথে হাঁটেন তারা।
এদিকে, ২০১৭ সালে অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলার সঙ্গে তাহসানের ১১ বছরের দাম্পত্য ভেঙে যায়। তবে বিচ্ছেদের পরও সুন্দর বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখেছেন তাহসান-মিথিলা। তাদের একমাত্র মেয়ে আইরাকেও মাঝে-মধ্যে বাবা তাহসানের কাছে গিয়ে থাকতে দেখা যায়। যদিও ভালো আর মন্দ কোনো ক্ষেত্রেই সমালোচকের অভাব হয় না। তাহসান-মিথিলার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নিয়েও তাদের বহুবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছে। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here