৫ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ লড়াইয়ে আজ (৯ আগস্ট) সন্ধ্যায় সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হচ্ছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। টানা ম্যাচের মধ্যে থাকায় আগের দিন অনুশীলন করেনি কেউই। আগেই সিরিজ নিশ্চিত করে টাইগাররা, শেষটা চায় জয় দিয়েই রাঙাতে।

এদিকে টানা তিন ম্যাচ জেতার পর শনিবার (৭ আগস্ট) চতুর্থ ম্যাচে প্রথম হারের স্বাদ পায় বাংলাদেশ। আর তাই এ পর্যন্ত অপরিবর্তিত একাদশ নিয়ে খেলা টাইগারদের শেষ ম্যাচে ইঙ্গিত মিলছে একাধিক পরির্তনের। অন্যদিকে ব্যবধান কমাতে মরিয়া অজি শিবির। মিরপুরের শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু সন্ধ্যা ৬টায়।

কি আছে মিরপুরের ওই দুর্বেধ্য উইকেটে! গেল ৪ ম্যাচ ধরে সেই উত্তরই যেন খুঁজেই চলেছেন দুই দলের ব্যাটসম্যানরা। স্বল্প পুঁজিও এখানে যে হয়ে ওঠে পাহাড়সম।
আপাতত সেই প্রশ্নকে পাশ কাটিয়ে দু’দলের দিকে মনোযোগী হওয়া যাক। ৫ দিনের ব্যবধানে ৪ ম্যাচ। টানা ধকলে ক্লান্ত সবাই। তাই শেষ টি-টোয়েন্টির আগের দিন ছুটি মিলল অনুশীলনে। হোটেলে হালকা জিম আর সুইমিংয়েই কেটেছে সময়।
রোমাঞ্চটা একটু বেশি-ই টাইগার শিবিরে। প্রথম দ্বিপাক্ষিক টি-টোয়েন্টি সিরিজেই যে শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার দম্ভ হয়েছে ভূপাতিত। টাইগার বোলারদের অবদানই যে সেখানে বেশি। এই সিরিজ জয় পেসার শরিফুলের কাছে বিশেষ কিছু। রাঙাতে চান শেষ ম্যাচটাও। যদিও শরিফুলের এ ম্যাচে খেলা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। এ ব্যাপারে বিসিবির তরফেও এখনো পর্যন্ত সুনির্দিষ্ট কোনো বিবৃতি পাওয়া যায়নি।
সিরিজ জয়ের পরেও কেন সাহাসী হতে পারল না বাংলার টিম ম্যানেজমেন্ট তা নিয়ে এখনো হচ্ছে সমালোচনা। শেষ টি-টোয়েন্টিতে তাই দলে আসতে পারে জোড়া পরিবর্তন। সৌম্যের পরিবর্তে ফিরতে পারেন মিথুন। শেষ টি-টোয়েন্টিতে কপাল খুলতে পারে স্পিন অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের। পেসার শরিফুলের জায়গায় সুযোগ পেতে পারেন সাইফউদ্দিনও।

অন্যদিকে, স্বস্তির জয় পেলেও স্বস্তিতে নেই অস্ট্রেলিয়া। শেষ ম্যাচটা জিতে কিছুটা হলেও প্রলেপ লাগাতে চায় সেই ক্ষতে। তবে মিরপুরের উইকেটে বিষয়টি যে কতটা কঠিন সেটা বেশ ভালোভাবেই জানে আগের ম্যাচের ম্যাচসেরা সোয়েপসন।
টিম অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার মিচেল সোয়েপসন বলেন, ‘শেষ ম্যাচটা জিততে চাই। এটাই আপাতত দলের সবার লক্ষ্য। যদিও এই উইকেট স্পিনারদের জন্য স্বর্গ। সিরিজ হারলেও বাংলাদেশের মতো এমন কন্ডিশনে খেলার অভিজ্ঞতা, বিশ্বকাপের আগে আমাদের জন্য দারুণ ইতিবাচক।’
যদিও আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে এ ম্যাচের ‘এক্স ফ্যাক্টর’ হতে পারে বেরসিক বৃষ্টি। তাইতো হয়তো আরো একটি লো-স্কোরিং ম্যাচ দেখা যেতে পারে।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here