ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও তার স্ত্রী ক্যারি জনসন তাদের অনাগত সন্তানের অপেক্ষায় রয়েছেন। তার স্ত্রী ক্যারি জানিয়েছেন, তিনি আবার অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন। এ বছরের শুরুতে ক্যারি জনসনের গর্ভপাত হয়। সে সময় তার মন ভেঙে গিয়েছিল বলে তিনি জানিয়েছেন।

৩৩ বছর বয়সী ক্যারি জানান, আমি আবার অন্তঃসত্ত্বা হতে পেরে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি। কিন্তু আমি কিছুটা শঙ্কিতও। কারণ অনেকের জন্য প্রজননের বিষয়টি কঠিন হতে পারে। তবে গর্ভপাতের অভিজ্ঞতা আছে এমন অনেকের সঙ্গে কথা বলে আমি দারুণভাবে আশাবাদী হয়েছি।


আগামী ডিসেম্বরে দ্বিতীয় সন্তান জন্ম দিতে পারবেন বলে আশা করছেন ক্যারি জনসন। ইনস্টাগ্রামে ক্রিসমাস ট্রি বাবলের একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, এই ক্রিসমাসে আমাদের শিশুর আগমন প্রত্যাশা করছি।

ক্যারির ওই পোস্টে তাদের ভক্ত-অনুসারীরা অভিনন্দন ও শুভকামনা জানিয়েছেন। বরিস ও ক্যারির প্রথম সন্তান উইলফ্রেড। উইলফ্রেড যখন জন্ম নেয় তখন তার বাবা কোভিড ১৯ এ আক্রান্ত হয়ে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সন্তান কতজন তা তিনি সহজে স্বীকার করেন না। তিনি মনে করেন তার পাঁচটি সন্তান ও দুই স্ত্রী রয়েছে।

৫৭ বছর বয়সী বরিস জনসনের সাবেক স্ত্রী হলেন ম্যারিনা হুইলার। ১৯৯৩ সালে তিনি ম্যারিনাকে বিয়ে করেন। ম্যারিনা ও বরিসের চার সন্তান রয়েছে। গত বছর নভেম্বরে তাদের বিচ্ছেদ ঘটে।


২০১৯ সালে বরিস ও ক্যারির পরিচয়পর্ব শুরু হয়। বিয়ে না করেও তারা একসঙ্গে শুরু থাকা শুরু করেন। এরপরের বছর ২০২০ সালের এপ্রিলে তাদের ঘরে জন্ম নেয় উইলফ্রেড। এরপর ওই বছরের মে মাসে ওয়েস্টমিনস্টায় নিজেদের বিয়েটা সেরে ফেলেন তারা।
সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here