দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় (২৯ জুলাই সকাল ৮টা থেকে ৩০ জুলাই সকাল ৮টা পর্যন্ত) ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ১৭০ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে ১৬৪ জনই রাজধানীর। ঢাকার বাইরের ৬ জন। শুক্রবার (৩০ জুলাই) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পাঠানো এক সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার ১৯৪ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। চলতি বছরে এটি একদিনে সর্বোচ্চ রোগী ভর্তির রেকর্ড।

এছাড়া বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ৭০৯ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে সর্বমোট ভর্তি রোগী ৬৭৯ জন এবং অন্যান্য বিভাগে ভর্তি রয়েছেন ৩০ জন। সরকারি হাসপাতালগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২৭ জন ভর্তি এসএমসি ও মিটফোর্ড হাসপাতালে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুসারে, চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত দেশে সর্বমোট ডেঙ্গু রোগী ২ হাজার ৪৬২ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ হাজার ৭৪৯ জন।  
কোভিড পরিস্থিতিতে হাসপাতাল ব্যবস্থাপনায় শৃঙ্খলা আনতে ডেঙ্গু রোগীদের জন্য কয়েকটি হাসপাতাল নির্দিষ্ট করে দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে চলতি সপ্তাহেই আবারও রাজধানীতে শুরু হচ্ছে মশক নিধন অভিযান।
চলতি মৌসুমে ডেঙ্গু সন্দেহে ৩টি মৃত্যুর তথ্য পাওয়া গেলেও এখনও কোনো মৃত্যুই ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত করেনি আইইডিসিআর।
এদিকে, নগরবাসীকে ডেঙ্গুর হাত থেকে বাঁচাতে নিজ নিজ বাসা-বাড়ি পরিচ্ছন্ন রাখতে প্রতি সপ্তাহের শনিবার নগরবাসীকে অন্তত ১০ মিনিট সময় দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র  আতিকুল ইসলাম।
নগরবাসীদের উদ্দেশ্যে ডিএনসিসি থেকে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় শুক্রবার (৩০ জুলাই) গুলশানের নগর ভবন থেকে তিনি এ আহ্বান জানান।
এসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কোন লজ্জা নয়, একটি সামাজিক আন্দোলনের একটি অংশ উল্লেখ করেন মেয়র বলেন, ‘নিজ ঘর পরিষ্কার করলে লজ্জার কিছু নেই। এডিস মশার বংশবিস্তাররোধে আমাদের সবাইকেই লজ্জা পরিহার করে প্রতি শনিবার সকাল ১০টায় ১০ মিনিট স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ নিজ বাসাবাড়ি পরিষ্কার করতে হবে।’
আগামীকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকেই এই কার্যক্রম শুরু করতেও আহ্বান জানান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।
তিনি সবাইকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ডেঙ্গু মশা কখনো ময়লা পানিতে জন্ম নেয় না। নর্দমা এমনকি ড্রেনেও না। ডেঙ্গু মশা সবসময় স্বচ্ছ পানিতে জন্ম নেয়। ফলে অজান্তেই সবাই ডেঙ্গু মশার চাষ করছে বলেও জানান মেয়র।
এমনকি ঘর পরিষ্কার করার সময় অপ্রয়োজনীয় জিনিস যেখানে সেখানে না ফেলতেও অনুরোধ করেন মেয়র আতিক। বলেন, ‘ঘর পরিষ্কার করার সময় অপ্রয়োজনীয় জিনিস যেখানে সেখানে ফেলে না দিয়ে বাসার নীচে একটি জায়গায় রেখে দিবেন। সেখান থেকে সিটি করপোরেশনের লোকজন এসে জিনিসগুলো নিয়ে যাবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here