কক্সবাজারের টেকনাফে পৃথক অভিযান চালিয়ে দেশীয় তৈরি মদ ও ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে কোস্টগার্ডের সদস্যরা। এসময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশা জব্দ করা হয়েছে।

 

শনিবার (২৪ জুলাই) দুপুরে কোস্টগার্ড পূর্ব জোনের কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট এম আব্দুর রউফ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।

লে. আব্দুর রউফ বলেন, শুক্রবার রাত ৮টায় শহীদ এটিএম জাফর আলম আরাকান সড়কের (কক্সবাজার-টেকনাফ সড়ক) কোস্টগার্ডের টেকনাফ স্টেশন সংলগ্ন চেকপোস্টের সামনে উপজেলা সদর দিক থেকে আসা সন্দেহজনক একটি অটোরিকশা পৌঁছালে থামার জন্য নির্দেশ দেন। এতে গাড়িতে থাকা এক ব্যক্তি সঙ্গে থাকা ছোট দুইটি বস্তা সড়কের পাশে ফেলে দৌঁড় দেয়। এসময় তাকে ধাওয়া দিলে পাহাড়ি এলাকার ভেতর পালিয়ে যায় সে।
তিনি বলেন, পরে বস্তা দুইটির ভেতরে পাওয়া ৭ টি প্লাস্টিকের বোতল ভর্তি ৩৪ লিটার দেশীয় তৈরি বাংলা মদ। উদ্ধার করা মদগুলো টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান কোস্টগার্ডের এ কর্মকর্তা।
এদিকে শুক্রবার রাত ১০টায় টেকনাফ উপজেলা সদর এলাকায় কোস্টগার্ডের একটি দল পৃথক আরেকটি অভিযান চালিয়ে সাড়ে ৮০০ ইয়াবাসহ এক অটোরিকশা চালককে আটক করেছে বলে জানিয়েছেন লেফটেন্যান্ট এম আব্দুর রউফ। এ সময় জব্দ করা হয় ইয়াবা পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত অটোরিকশাটি।
আটক মোহাম্মদ শফিউল্লাহ (২১) টেকনাফ উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ লম্বরী এলাকার মো. আবু সৈয়দের ছেলে।
লে. আব্দুর রউফ বলেন, শুক্রবার রাতে টেকনাফ উপজেলা সদর স্টেশন এলাকা থেকে গাড়িযোগে ইয়াবার একটি চালান পাচারের খবরে কোস্টগার্ডের একটি দল অভিযান চালায়। এতে কোস্টগার্ড সদস্যরা সন্দেহজনক একটি অটোরিকশাকে থামার জন্য নির্দেশ দেয়।
এসময় চালক কোস্টগার্ড সদস্যদের দেখতে পেয়ে অটোরিকশা ফেলে পালানোর জন্য দৌড় দেয়। কোস্টগার্ড সদস্যরা ধাওয়া দিয়ে তাকে আটক করতে সক্ষম হয়। পরে তার শরীর তল্লাশি করে পাওয়া যায় ৮০০টি ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আটক ব্যক্তিকে টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করে মামলা করা হয়েছে বলে জানান লেফটেন্যান্ট এম আব্দুর রউফ। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here