ফ্রান্সের সব থেকে আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্র হচ্ছে আইফেল টাওয়ার। এবার করোনা পরিস্থিতিতে এই স্থানটি প্রায় নয় মাস ধরে দর্শনার্থীদের জন্য বন্ধ করে রাখা হয়েছিল। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়টি বাদ দিলে এত দীর্ঘ সময় আইফেল টাওয়ার কখনওই বন্ধ ছিল না।

 

আপাতত ফ্রান্স তাদের করোনা সঙ্কট কাটিয়ে উঠে আস্তে আস্তে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। আর সে জন্যই পর্যটন খাতের দিকে লক্ষ্য রেখে শুক্রবার (১৬ জুলাই) আইফেল টাওয়ারটি সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। যে কোনো দর্শনার্থী করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখিয়ে আইফেল টাওয়ারে প্রবেশ করতে পারবেন।

প্যারিসের মেয়র এ্যনি হিডালগো টাওয়ার খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি এই ইতিহাসে জর্জরিত জায়গাটিকে আবারও একবার নতুন করে আবিষ্কারের জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। দর্শনার্থীদের মধ্যে বেশিরভাগ ফরাসি হলেও, ইতালীয় এবং স্প্যানিশদেরও আনাগোনা দেখা যাচ্ছে।
ফরাসিদের কাছে আইফেল টাওয়ার ‘ট্যুর আইফেল’ নামেই অধিক সমাদৃত। ১৮৯৯ সালে ফরাসি বিপ্লবের শতবর্ষ উপলক্ষে গুস্তাভো আইফেল টাওয়ারটি নির্মাণ করেন। যুক্তরাষ্ট্রের ক্রাইসলার ভবনটি নির্মানের আগে আইফেল টাওয়ারটিকেই পৃথিবীর উচ্চতম টাওয়ার হিসেবে বিবেচনা করা হতো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here