পরিস্থিতির ভয়াবহতায় উচ্চঝুঁকিতে খুলনা, রাজশাহী, কুষ্টিয়া, টাঙ্গাইল ও সাতক্ষীরা জেলা। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশের উত্তর ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ১৭০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এদিকে রোগীর চাপে হাসপাতালগুলোতে হিমশিম অবস্থা।

 

কুষ্টিয়া:
কুষ্টিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরও ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ১২ জন করোনা আক্রান্ত ও ১০ জন উপসর্গ নিয়ে মারা যান। ৭৯২টি নমুনা পরীক্ষায় ২২০ জনের করোনা শনাক্ত হয়। বর্তমানে জেলার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে করোনা নিয়ে ১৮৭ জন ও উপসর্গ নিয়ে ৯৩ জন ভর্তি রয়েছে।
 

চট্টগ্রাম:
করোনায় চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে ১০০০ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৭৮৩ জনের দেহে। এটিই চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট ৭৫৪ জন মারা যান। 
 

শনাক্তদের মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৭৬ জন, ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি ল্যাবে ১৭২ জন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাবে ১০৭ জন, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ইউনিভার্সিটি ল্যাবে ৭৫ জন, ইমপেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৬৫ জন ও শেভরণ হাসপাতাল ল্যাবে ৪২ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়। 

পঞ্চগড়:
পঞ্চগড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃত্যু ২৯ জনের। ১৬০ জনের শরীরের নমুনা পরীক্ষায় আরও ৬৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ পর্যন্ত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৪৪১ জন।  
 

সাতক্ষীরা:
করোনা উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৮ জন মারা গেছেন। করোনা ডেডিকেটেড সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে জেলায় ৪০৩ জন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেল। আর করোনা পজিটিভ রোগী মারা গেছে ৭৬ জন। এদিকে ২৩৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৭৯ জনের পজিটিভ হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ।
 

রাজশাহী:
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ৩ জন করোনায় ও বাকি ১৫ জনের করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যান। ৪৭৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে আরও ৮৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ১৮ দশমিক ১৬ শতাংশ। হাসপাতালটিতে করোনার জন্য নির্ধারিত ৪৮৫ শয্যা থাকলেও ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৫০১ জন রোগী।
 

টাঙ্গাইল:
জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়ে এবং একজন উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। ৭১৭টি নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ২৯০ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৪৪ দশমিক ৪৪ শতাংশ। এদিকে প্রতিদিন করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর তালিকা দীর্ঘ হওয়ায় চিকিৎসকরা চিকিৎসাসেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে। হাসপাতালে জায়গা সংকট না হওয়ায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের মেঝেতে চিকিৎসা দিতে হচ্ছে।
 

নোয়াখালী:
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ ও চাটখিল উপজেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে নোয়াখালী কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে একজন, হোম আইসোলেশনে দুজন ও ঢাকা নেওয়ার পথে আরও একজন মারা গেছেন। জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৫২ জনে দাঁড়াল। এদিকে জেলায় নতুন করে আরও ১৪২ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ৬৮ শতাংশ।
 

ফরিদপুর:
ফরিদপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে পিসিআর ল্যাবে ৩৭৬ নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে আরও ২০৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৫২ দশমিক ২২ শতাংশ। বর্তমানে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভর্তি রয়েছে ৩৪৩ জন করোনা রোগী।
 

বগুড়া:
করোনায় বগুড়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ১৬  জন। এদের মধ্যে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ৬ জন, শহীদ জিয়াতে ৮ জন এবং এবং টি এম এস হাসপাতালে দুজন। মৃতরা সবাই বগুড়া, জয়পুরহাট  নওঁগা জেলার বাসিন্দা। গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৮২টি নমুনা পরীক্ষায় ১৭০ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ পর্যন্ত জেলায় করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ৪৭২ জন।  
 

ঠাকুরগাঁও:
ঠাকুরগাঁওয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। জেলায় ৩৭১টি নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ১৫১ জন শনাক্ত হয়েছে। বর্তমানে জেলায় করোনা শনাক্তের হার ৪০ দশমিক ৭০ শতাংশ।
 

বরিশাল:
বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৮ জন। এদের মধ্যে একজন করোনা পজিটিভ ছিল। ২৪ ঘণ্টায় জেলায় মোট আক্রান্তে সংখ্যা ১৮১ জন। এর মধ্যে ৮৪ জনই সিটি করপোরেশন এলাকার বাসিন্দা। শনাক্তের হার ৫৩ দশমিক ১৫। বর্তমানে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছে ৬৮ জন। এর মধ্যে ১২ জন পজিটিভ। বর্তমানে এখানে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ২৪৪ জন। এর মধ্যে পজিটিভ ৫৫ জন।
 


ময়মনসিংহ:
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ৬ জন করোনা শনাক্ত হয়ে এবং ৮ জন করোনা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে শুক্রবার সকাল ৮টার মধ্যে ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তারা। জেলায় ৬৬৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ১৮৭ জনের শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হয়। সংক্রমণের হার ২৭ দশমিক ৯৫ শতাংশ।
 

সিলেট:
সিলেটে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরও ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৪৪২ জন। তারা সবাই করোনা ডেডিকেটে হাসপাতালে মারা গেছেন।
 

এ ছাড়া গত  ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে নওগাঁয় ৩ জন, খুলনায় ২৭ জন, ঝিনাইদহে ১৩ জন, চুয়াডাঙ্গায় ৮ জন মারা গেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here