মাহমুদউল্লাহর সেঞ্চুরি আর তাসকিন আহমেদের দৃঢ়চেতা ফিফটিতে হারারে টেস্টের প্রথম ইনিংসে ভালো সংগ্রহ পেয়েছে সফরকারী বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে টাইগারদের সংগ্রহ ৪৬৮ রান।

 

১৩২ রানের মধ্যে ৬ উইকেট হারানো বাংলাদেশের দুইশ’ পেরোনো নিয়ে সংশয় দেখা দেয়। কিন্তু খাদের কিনারা উদ্ধার করেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং লিটন দাসের জুটি।   

প্রথম দিনের শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয় সামাল দেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। তিনি ৭০ রান করে বিদায় নেন। এরপর বেশিদূর যেতে পারেননি মুশফিক-সাকিব। তারা ফিরে গেলে বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। পরে হাল ধরেন লিটন দাস। তবে দিনশেষে সেঞ্চুরি না পাওয়ারা আফসোসে পুড়েছেন লিটন। আউট হয়ে ফিরে গেছেন ৯৫ রানে। কিন্তু অন্যপ্রান্তে অটল ছিলেন রিয়াদ। দীর্ঘদিন পর একাদশে জায়গা পেয়েই নিজের অপরিহার্যতা আরও একবার প্রমাণ করলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। অপরাজিত থাকেন ১৫০ রানের ইনিংস। 

ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার দিনে সফল হলেন একজন বোলার। পেসার তাসকিন যেন এদিন অপ্রতিরোধ্য। হয়ে উঠলেন পুরোদস্তুর ব্যাটসম্যান। ব্যাট হাতে রাখেন কৃতিত্বের স্বাক্ষর। তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি। তার ব্যাট থেকে আসে ৭৫ রান। তাসকিন ও মাহমুদউল্লাহ জুটি অনন্য রেকর্ড গড়েছে। বাংলাদেশের পক্ষে নবম উইকেটে জুটিতে সর্বোচ্চ ১৯১ রান গড়েছেন দুজন মিলে। 

এর আগে লিটন দাস ৯৫ এবং অধিনায়ক মুমিনুল হক করেন ৭০ রান। স্বাগতিকদের হয়ে ৪টি উইকেট নিয়েছেন মুজারাবানি। এছাড়া ডোনাল্ড ত্রিপানো এবং ভিক্টর নাওচি নেন ২টি করে উইকেট।  

টাইগারদের করা প্রথম ইনিংসের জবাবে ব্যাট করতে নেমেছে জিম্বাবুয়ে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তাদের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৫০ রান। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here