ব্যক্তিগত কোনো মাইলফলক নয়, দল হিসেবে শিরোপায় চোখ মেসির। সে লক্ষ্যেই পরিকল্পনা সাজাবে আর্জেন্টিনা।
গোল পাওয়ার আগে পর্যন্ত ইকুয়েডরের বিপক্ষে ম্যাচটা কঠিন ছিল। শারীরিকভাবে তারা অনেক এগিয়ে। ম্যাচ শেষে জানিয়েছেন লিওনেল মেসি। আর একটি গোল করলে কোপা আমেরিকায় পেলের রেকর্ড স্পর্শ করবেন মেসি। তবে এবারের আসরে ব্যক্তিগত কোনো মাইলফলক নয়, দল হিসেবে শিরোপায় চোখ তার। আসছে ম্যাচ নিয়েই আর্জেন্টিনা পরিকল্পনা সাজাবে বলেও জানান তিনি। 

খুদে জাদুকর, ম্যাজিশিয়ান কিংবা সেরা ফুটবলার। এই শব্দগুলো প্রতিদিন যেন আরও শোভিত হয় লিওনেল মেসির পায়ের কারুকার্যে। একটা ফুটবলারকে কেন্দ্র করে একটা দল কিভাবে অপ্রতিরোধ্য হয়ে ওঠে তা দেখিয়েছেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। 

কোপা আমেরিকায় এখন পর্যন্ত খেলা ৫ ম্যাচের ৪টিতে ম্যাচ সেরার পুরস্কারটা গেছে তার ঝুলিতে। যার সবশেষ সংযোজন মেসিময় ম্যাচে ইকুয়েডরকে বিধ্বস্ত করে। তবে ম্যাচটা কতটা কঠিন ছিল বললেন এলএমটেন। 

মেসি জানান, ‘সত্যি কথা বলতে এটা কঠিন ম্যাচ ছিল। ইকুয়েডর কঠিন প্রতিপক্ষ। বেশির ভাগ ফুটবলার তরুণ ও অনেক গতিময় ফুটবল খেলে। গোল পাওয়ার আগ পর্যন্ত আমাদের অনেক ভুগতে হয়েছে। তারা অনেক চাপ প্রয়োগ করে খেলেছে। শেষ পর্যন্ত আমরা গুরুত্বপূর্ণ একটি ম্যাচ জিতেছি।’
লিওনেল মেসির পায়ের শিল্প ফুটবল মাঠে বারবার জন্ম দিয়েছে নতুন রেকর্ডের। এই ম্যাচেও ২টি অ্যাসিস্ট করেছেন। সঙ্গে এক গোল করে এখন কোপা আমেরিকায় পেলের রেকর্ড থেকে মাত্র ১ গোল দূরে। তবে মেসির কাছে ব্যক্তিগত রেকর্ড নয়, দলীয় অর্জনই মুখ্য। 

মেসি আরও জানান, ‘ব্যক্তিগত রেকর্ড আমার কাছে মুখ্য নয়। আমি আমার সতীর্থদের অভিনন্দন করছি। ওরা দারুণ খেলেছে। আমরা পরিবার ছেড়ে এখানে এসেছি। আমরা একমাত্র দল যারা এখনো বায়োবাবল ভঙ্গ করিনি। আমাদের একটাই লক্ষ্য শিরোপা জেতা। আমরা সেই লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছি।’ 

কোপা আমেরিকার মাঠের অবস্থা নিয়ে সমালোচনা হয়েছে আগেও। এবার সেই সুরে তাল দিলেন লিওনেল মেসিও। তবে সব প্রতিকূলতা কাটিয়ে ভালো খেলার প্রত্যয় আলবিসেলেস্তেদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here