কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিতের মিশনে কলম্বিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে ব্রাজিল। ‘বি’ গ্রুপে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে সেলেসাওরা। কলম্বিয়ার বিপক্ষে জয় ধরে রাখার লক্ষ্য তিতের। প্রতিপক্ষ কলম্বিয়াও চায় শীর্ষ আটে পা রাখতে। রিও ডি জেনেইরোতে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায়। 

তেরেসোপোলিসে কুয়াশায় ঢেকে গেছে চারপাশ। শীতের সকালের কুয়াশা বড় প্রিয় নেইমারদের। তিতের অনুপ্রেরণায় উজ্জীবিত পুরো দল। আসরের আগে স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা ভেবে খেলতে অনাগ্রহ থাকলেও, আসর শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই খোলস ছেড়ে বেরিয়ে গেছে ব্রাজিল। রীতিমতো উড়ছে সেলেসাওরা। 

ভেনেজুয়েলাকে ৩-০ গোলে হারিয়ে শুরু। পরের ম্যাচে ব্রাজিল ঝড়ে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে গেল আসরের রানার্সআপ পেরু। দুই ম্যাচে আসরে সবচেয়ে বেশি ৭ গোল ব্রাজিলের। এখনও হজম করেনি কোনো গোল। তৃতীয় ম্যাচে প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া। কোয়ার্টার ফাইনাল আগেই প্রায় নিশ্চিতই ছিল। এ ম্যাচে জয়যাত্রা ধরে রেখে সেটা কাগজে কলমে নিশ্চিতের লক্ষ্য সেলেসাও কোচের। তবে প্রতিপক্ষের প্রতি সমীহ রাখছেন তিতে। 

ব্রাজিলের কোচ তিতে বলেন, ‘আমরা আমাদের পরিকল্পনা মতোই এগোচ্ছি। কলম্বিয়া ভালো দল। ওদের হারাতে হলে আরও সতর্ক থাকতে হবে। ফুটবলারদের প্রতি আমার আস্থা আছে। শিরোপা জয়ের পথে প্রতিটি ম্যাচই আমাদের কাছে সমান গুরুত্বপূর্ণ।’
কলম্বিয়ার বিপক্ষে ৪-৩-৩ ফরমেশনে থাকার ইচ্ছে তিতের। আক্রমণভাগে রিচার্লিসনের সঙ্গে দেখা যেতে পারে জেসুস ও নেইমারকে। মাঝমাঠে ফেডের জায়গা পাকাপোক্তই আছে। তার সঙ্গে ফ্যাবিনহো ও ক্যাসেমিরো। গোলপোস্টের নিচে অ্যালিসনের বিকল্প আর কিছুই নেই তিতের কাছে। সব মিলিয়ে একাদশ গুছিয়ে ফেলেছেন কোচ। আসরে এখন পর্যন্ত দুটি গোল করেছেন নেইমার। জাতীয় দলের জার্সিতে তার গোল ৬৮টি। আর মাত্র ৯টি গোল করলেই কিংবদন্তি ফুটবলার পেলের ৭৭ গোলের রেকর্ড স্পর্শ করবেন নেইমার। সমর্থকরাও অপেক্ষায় কোপায় হবে সে স্বপ্নের বাস্তবায়ন। 

প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া এক জয় ও এক ড্র’য়ে চার পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে। পরিসংখ্যানে দু’দলের ৩২ ম্যাচে ১৯ বারই জয় পেয়েছে ব্রাজিল। ড্র হয়েছে দশটি ম্যাচ। কোপায় দু’দলের দশবারের দেখাতেও এগিয়ে সেলেসাওরা। ৭ ম্যাচেই জয় আছে নেইমারদের। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here