Image processed by CodeCarvings Piczard ### FREE Community Edition ### on 2019-03-11 13:32:11Z | http://piczard.com | http://codecarvings.com

 

প্রশ্ন উঠেছে ৩৫ বছর বয়সী রামোস কোথায় যাবেন?
রিয়াল মাদ্রিদ অধ্যায় শেষ হচ্ছে সার্জিও রামোসের। রিয়াল মাদ্রিদ আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে। এর মাধ্যমে ক্লাবের সঙ্গে দীর্ঘ ১৬ বছরের সম্পর্ক শেষ হতে যাচ্ছে সার্জিও রামোসের। 

২০০৫ সালে সেভিয়া থেকে ১৯ বছর বয়সে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেন রামোস। বর্তমানে চুক্তির মেয়াদ শেষ হতে থাকলেও ক্লাব থেকে কোনো প্রস্তাব না পাওয়ায় হতাশ ছিলেন তিনি। পরে ক্লাব কর্তৃপক্ষ নতুন চুক্তির আহ্বান জানালেও সেখানে একমত হতে পারেনি দু’পক্ষ। নতুন চুক্তির মেয়াদ ও আর্থিক বিষয়াদি নিয়ে ক্লাবের সঙ্গে মতের মিল হচ্ছিল না তার। তাই সবশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ফুটবল দুনিয়ায় বড় খবর- রিয়াল ছাড়ছেন রামোস। 

রিয়াল ছাড়ার পর সমর্থকদের মনে স্বভাবতই প্রশ্ন উঠেছে কোথায় যাবেন রামোস? বর্তমানে ৩৫ বছর বয়সী রামোস আছেন বেশ দ্বিধায়। এই বয়সে ইউরোপের কোনো বড় কোনো দলে যেতে পারবেন কি?   

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’ কৌতূহলী শিরোনামে জানিয়েছে, এখন বড় প্রশ্ন, কোথায় যাচ্ছেন রামোস? সংবাদমাধ্যমটির বিশ্লেষণ বলছে, অন্তত আরও দুই মৌসুম খেলার সামর্থ্য রয়েছে রামোসের।
বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের মতে, রামোসের পরবর্তী গন্তব্য হতে পারে ইতালির কোনো ক্লাবে। গত বছরের শেষ দিকে রামোসের ব্যাপারে রিয়ালের সঙ্গে কথা বলছিল য়্যুভেন্তাস। তবে এই তালিকায় পিছিয়ে নেই ইংল্যান্ডের ক্লাবগুলোও। ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও ম্যানচেস্টার সিটিরও রামোসের প্রতি আগ্রহ আছে। ‘স্কাই স্পোর্টস’র এক খবরে জানা যায়, পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি দুই বছরের জন্য চুক্তি করতে চায় রামোসের সঙ্গে। 

তবে এসব বড় ক্লাবের পাশাপাশি সেভিয়াও আছে তাকে পাওয়ার দৌড়ে। কেননা এই ক্লাবেই যে বয়সভিত্তিক ফুটবল খেলে বেড়ে উঠেছেন রামোস। ২০০৪ সালে এই ক্লাব দিয়েই শুরু করেছিলেন বয়সভিত্তিক ফুটবল। এরপর যোগ দিয়েছিলেন রিয়াল মাদ্রিদে। তাই সবমিলিয়ে পুরনো ক্লাবে ফিরে আসার সম্ভাবনাও একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায় না। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here