পাকিস্তানের প্রবীণ সাংবাদিক ও টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব হামিদ মীরের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহী মামলা করতে লাহোর হাইকোর্টে একটি পিটিশন দাখিল করা হয়েছে।

শুক্রবারের (৪ জুন) পিটিশনে বলা হয়, তিনি (হামিদ মীর) দেশের সুশৃঙ্খল প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অবমাননাকর মন্তব্য ও অভিযোগ করেছেন।-খবর ডন অনলাইনের

জিয়ো টেলিভিশনের ‘ক্যাপিটাল টকের’ দীর্ঘদিনের জনপ্রিয় উপস্থাপক হামিদ মীর। সাংবাদিক আসাদ আলী তুরের ওপর হামলার প্রতিবাদে এক মানববন্ধনে দেওয়া বক্তৃতায় সরকারের কাছে জবাবদিহিতা চেয়েছেন তিনি। সাংবাদিকদের ওপর আর কোনো হামলা হলে তিনি এই জ্বালাময়ী বক্তৃতা অব্যাহত রাখবেন বলেও জানিয়েছেন।

এরপর তাকে বিমানে চড়তে দেওয়া হয়নি। বিবিসি উর্দুকে তিনি বলেন, জিয়ো নিউজ ব্যবস্থাপনা কমিটি জানিয়েছেন যে সোমবার তাকে বিমানে চড়তে দেওয়া হবে না। এদিনই তিনি ‘ক্যাপিটাল টক’ নামের টকশো অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেন।

জাতীয় প্রেসক্লাবের বাইরে দেওয়া ওই বক্তৃতার ব্যাখ্যা কিংবা তা প্রত্যাহার করে নিতে তাকে বলেছে জিয়ো নিউজ। শুক্রবার আইন ও বিচার এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষে পিটিশনটি করেছেন অ্যাডভোকেট নাদিম সারওয়ার।

এতে বলা হয়, হামিদ মীরের ব্যবহার সমাজ ও প্রতিষ্ঠানের জন্য অবমাননাকর। সমাজ, সভ্য দেশ ও সুশৃঙ্খল সরকারের বিরুদ্ধে যে কোনো অপরাধই হচ্ছে রাষ্ট্রদ্রোহী। দেশ ও প্রতিষ্ঠানের সততা ও সংরক্ষণ ব্যাপক গুরুত্বপূর্ণ এবং উদ্যোগের বিষয়। কাজেই সেই কার্যক্রম ব্যাহত ও দুর্বল করে দিতে প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ যে কোনো চেষ্টায় সমর্থন না দেওয়া আমাদের পবিত্র দায়িত্ব।

পিটিশনে বলা হয়, বর্তমান প্রেক্ষাপটে কেন্দ্রীয় সরকার হামিদ মীরের বিরুদ্ধে কোনো মামলা করতে ব্যর্থ হয়েছে। যা সরকারের একটি অবশ্যকরণীয় দায়িত্ব।

হামিদ মীরের বিরুদ্ধে একটি মামলা করতে সরকারকে নির্দেশ দিতে আদালতের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে এই পিটিশনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here